রাজনীতিরাজ্য

ভোট পরবর্তী হিংসার ঘটনায় CBI তদন্তের দাবী NHRC-র রিপোর্টে

রাজ্য়ে ভোট পরবর্তী হিংসা (Post-Poll Violence)-র ঘটনার তদন্তে সিবিআই (CBI) তদন্তের সুপারিশ করল জাতীয় মানবাধিকার কমিশন (NHRC)। এর পাশাপাশি আরও কিছু সুপারিশ করেছে তারা। তারা (NHRC) কলকাতা হাইকোর্ট (Calcutta High Court)-এর কাছে তাদের রিপোর্ট জমা দিয়েছে।

আর কী কী সুপারিশ রয়েছে
জাতীয় মানবাধিকার কমিশন (NHRC) কলকাতা হাইকোর্ট (Calcutta High Court)-এ জানিয়েছে, হিংসা (Post-Poll Violence)-র ঘটনা খতিয়ে দেখতে সিবিআই (CBI) তদন্ত করতে হবে। রাজ্যের বাইরে শুনানি করা দরকার। আদালতের নজরদারিতে বিশেষ তদন্তকারী দল (সিট বা SIT) গঠন করতে হবে।

সাক্ষীরা যাঁরা নিরাপদে থাকেন, সে ব্যাপারে ব্যবস্থা নিতে হবে। পুলিশি সংস্কারের সুপিরাশ করেছে কমিশন (NHRC)। এর পাশাপাশি তারা আরও জানিয়েছে, পর্যালোচনা কমিটি গঠন করতে হবে। সংস্কারের দরকার রয়েছে আমলাতন্ত্রেও।

এদিকে, বাংলায় ভোট পরবর্তী হিংসা (Post-Poll Violence)-র অভিযোগ খতিয়ে দেখতে ৭ সদস্যের কমিটি গঠন করল জাতীয় মানবাধিকার কমিশন (NHRC)। কমিটির প্রধান হয়েছেন কমিশনের সদস্য রাজীব জৈন। জাতীয় মানবাধিকার কমিশন (NHRC)-এর চেয়ারপার্সন, প্রাক্তন বিচারপতি অরুণ মিশ্র এই কমিটি তৈরি করেছেন। একুশের ভোটের ফল প্রকাশের পর হিংসার অভিযোগ তুলেছে বিরোধীদলগুলি।

কমিটির সদস্যরা হলেন-
১) জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সদস্য রাজীব জৈন
২) জাতীয় সংখ্য়ালঘু কমিশনের সহ-সভপতি আতিফ রশিদ
৩) জাতীয় মহিলা কমিশনের সদস্য রাজুলবেন এল দেশাই
৪) জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের ডিরেক্টর জেনারেল (তদন্ত) সন্তোষ মেহরা
৫) রাজ্য মানবাধিকার কমিশনের রেজিস্ট্রার প্রদীপকুমার পাঁজা
৬) রাজ্য লিগ্যাল সার্ভিসেস অথরিটির সদস্য-সচিব রাজু মুখোপাধ্য়ায়
৭) জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের ডিআইজি (তদন্ত) মঞ্জিল সৈনি

ওই কমিটি কী করবে
সোমবার জাতীয় মানবাধিকার কমিশনকে ভোট পরবর্তী হিংসার জেরে ঘরছাড়া নাগরিকদের সমস্ত অভিযোগ খতিয়ে দেখতে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারপার্সনকে নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট।

শুক্রবার ১৮ জুন একটি মামলার শুনানিতে এই নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট। পাশাপাশি এদিন আদালতের তরফে রাজ্যেকেও আইনশৃঙ্খলা বজায় রাখার ক্ষেত্রে দায়বদ্ধতা মনে করিয়ে দেওয়া হয়। আরও সতর্কতা ও উদ্যোগ নিতে হবে বলে জানানো হাইকোর্টের তরফে।

এর আগে ৩১ মে একাধিক আবেদনের উপর ভিত্তি করে ঘটনার গুরুত্ব অনুধাবন করে ভোট পরবর্তী হিংসায় ঘরছাড়াদের ঘরে ফেরাতে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করে কলকাতা হাইকোর্ট। তিন সদস্যের এই কমিটিতে রয়েছেন রাজ্য মানবাধিকার কমিশন, কেন্দ্রীয় মানবাধিকার কমিশন এবং রাজ্য লিগাল সার্ভিস কর্তৃপক্ষের প্রতিনিধি।

সূত্র : আজতক

আরও পড়ুন ::

Back to top button