রাজনীতিরাজ্য

‘সকলে করোনা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন’, রাজ্য বাসীর কাছে আবেদন ফিরহাদ হাকিমের

আজ শনিবার তাই নিয়ম মতই টক টু কেএমসি-তে সাংবদিকদের মুখোমুখি হন কলকাতা কর্পোরেশনের প্রশাসক মন্ডলীর চেয়ারম্যান ফিরহাদ হাকিম। করোনা ভ্যাকসিন ও করোনা বিধি নিয়ে আবারও অবস্থান স্পষ্ট করলেন ফিরহাদ হাকিম। একইসঙ্গে সকলকে করোনা বিধি মানার জন্য হাত জোড় করে অনুরোধও করেন ফিরহাদ হাকিম।

কারণ, ইতিমধ্যেই করোনার তৃতীয় ঢেউ অবশ্যম্ভাবী বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। আগামী ১০০ থেকে ১৫০ দিন খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়েছে। সেইখানে দাঁড়িয়ে আজ টক টু কেএমসি থেকে হাত জোড় করে ফিরহাদ হাকিম বলেন, ‘এফেক্ট টা কমে গেছে। কিন্তু যেকোনো সময় বাড়তে পারে আমরা যদি বিধি না মানি।

সুতরাং আমাদের বিধি মানতেই হবে। আমাদের সবাইকে, নিজেদেরকে, পরিবারের সকলকে, বন্ধু বান্ধবকে নিরাপদে রাখতেই হবে। সেইজন্য আমাদের সবাইকে মাস্ক পড়ে বেরোতে হবে। এবং দূরত্ব বিধি মানতেই হবে। নাহলে আবার সংক্রমণ বেড়ে যাবে। আবার জীবনের সংশয় হবে। তাই আমাদের সবাইকে নিয়ম মানতে হবে। এটা এমন হাতজোড় করে সবাইকে অনুরোধ করছি।’ বলে জানান ফিরহাদ হাকিম।

পাশাপাশি তিনি জানান, ‘ভ্যাকশিন খুব কম আসছে। প্রয়োজনের তুলনায় মাত্র ১৫ শতাংশ ভ্যাকশিন পাচ্ছি। যতটা পাচ্ছি দিয়ে দিচ্ছি। ভ্যাকসিন যদি ঠিকমত কেন্দ্রীয় সরকার আমাদের দেয়। তাহলে আমরা সবাইকে দিতাম। যদি পর্যাপ্ত পরিমাণে এতদিন ভ্যাকসিন পেতাম তাহলে কলকাতায় সবাইকে ভ্যাকসিন দেওয়া শেষ হয়ে যেত’ বলেও জানান ফিরহাদ হাকিম।

তিনি আরও বলেন, ‘যদি পর্যাপ্ত পরিমাণে ভ্যাকসিন পাই তাহলে প্রতিদিন এক লাখ ভ্যাকসিন দিতে পারে কলকাতা কর্পেরেশন’ বলেও জানান তিনি। ‘রোজ ৫০ হাজার ভ্যাকসিন চেয়েছি সেখানে আসছে ২৫ হাজারের কাছাকাছি ভ্যাকসিন।’ বলে জানাবার পাশাপাশি ফিরহাদ হাকিম আবারও বলেন, ‘পর্যাপ্ত পরিমাণে ভ্যাকসিন পেলে কলকাতায় সবাইকে ভ্যাকসিন দেওয়া শেষ হয়ে যেত।’

সূত্র : প্রথম কলকাতা

আরও পড়ুন ::

Back to top button