রাজনীতিরাজ্য

‘এখনই সচেতন না হলে আগামীদিনে ভবিষ্যত্‍ অনেকটাই খারাপ হবে’, শুভেন্দুর হুঁশিয়ারি পুলিশকে

এতদিন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, পুলিশকে চমকে, ধমকে কিংবা পেটানোর নিদান দিতেন। এবার সেই জায়গা নিয়েছেন নন্দীগ্রামের বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী। রাজ্য পুলিশ শাসকদলের দলদাসে পরিণত হয়েছে, এই কথা বারবার বলেন বিজেপি নেতা। কিন্তু বিজেপি কর্মীদের মিথ্যা মামলা দিচ্ছে পুলিশ সেই কথা বলতে গিয়েই কার্যত হুমকির সুরে আক্রমণ করেছেন বিরোধী দলনেতা।

এদিন পুর্ব মেদিনীপুরের পুলিশ সুপারকে স্মারকলিপি দেওয়ার পর শুভেন্দু জানিয়েছেন, ‘আপনাদের হাতে রাজ্য সরকার থাকলে, আমাদের হাতে কেন্দ্র সরকার আছে। বিজেপি-কে দুর্বল ভাববেন না। রাজ্যে অশান্তি নিয়ে আদালতে মামলা চলছে। একাধিক পুলিশ কর্তার নাম রয়েছে। দিদিমণি ও অভিষেক কেউ বাঁচাতে পারবে না। এই জেলায় এক বাচ্চা ছেলেকে পাঠানো হয়েছে। দেখে দেখে আমাদের নেতা-কর্মীদের নামে মামলা দিচ্ছে। এখনও সময় আছে সচেতন হন। না হলে আগামীদিনে ভবিষ্যত্‍ অনেকটাই খারাপ হবে।’

এদিন পুলিশকে সচেতন করতে গিয়ে সারদা মামলা হয়ে পুলিশ কর্তা রাজীব কুমারের নাম আনেন শুভেন্দু। সারদা মামলায় সিবিআই জেরা এড়িয়ে আইনের ফাঁক দিয়ে আপাতত আদালতের নির্দেশে বহাল তবিয়তে রয়েছেন রাজীব কুমার। কিন্তু তৃণমূলের কথা শুনতে গিয়েই নাকি বিপদে পড়েছিলেন আইপিএস রাজীব কুমার।

এদিন শুভেন্দু সেই প্রসঙ্গে বলেছেন, ‘তৃণমূলের কথা শুনতে গিয়ে ভুল কাজ করবেন না। তৃণমূল কংগ্রেসের কথা শুনতে গিয়ে রাজীব কুমারের মতো অনেক পুলিশ অফিসারদের বিপদে পড়তে হয়েছে। আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়দের বিপদে পড়তে হয়েছে এই সরকারের কথা শুনতে গিয়ে। আপনাদের চাকরি ওরা দেয়নি। তাই চাকরিকে রক্ষা করে মানুষের কাছে যাতে সম্মানের সঙ্গে কাজ করতে পারেন, সেটা করুন।’

যদিও শুভেন্দু নিজেই সারদা মামলায় মূল অভিযুক্ত। সারদা কর্তা সুদীপ্ত সেন ম্যাজিস্ট্রেটকে লেখা চিঠিতে স্পষ্ট শুভেন্দুর বিরুদ্ধে টাকা নেওয়ার কথা জানিয়েছেন। কিন্তু রাজীবের প্রসঙ্গ টানলেও সুকৌশলে সারদা মামলা নিয়ে কিছুই বলেননি মেদিনীপুরের ভূমিপুত্র।

সুত্র : এই মুহুর্তে

আরও পড়ুন ::

Back to top button