রূপচর্চা

৫টি ধাপে ঘরেই করুন হোয়াইটনিং ফেসিয়াল

Whitening Facial at Home Step by Step : ৫টি ধাপে ঘরেই করুন হোয়াইটনিং ফেসিয়াল - West Bengal News 24

কোনো অনুষ্ঠানে ফেসিয়াল কম বেশি সবাই করে থাকেন। কিন্তু কাজের ব্যস্ততায় পার্লারে বুকিং দেওয়া হয়ে ওঠেনা। ভিড়ের ভয়ে পার্লারে যাওয়ার ইচ্ছা নেই? কী করবেন? উপায় আছে, ঘরে বসে নিজেই করে নিতে পারেন হোয়াইটনিং ফেসিয়াল। কোন বিশেষ অনুষ্ঠানের আগে চেহারায় দ্রুত উজ্জ্বলতা আনতে বেশ কার্যকর এই ফেসিয়ালটি। ত্বকের কালো দাগ দূর করে উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে এই ফেসিয়াল বেশ কার্যকর। আসুন জেনে ধাপে ধাপে কীভাবে ঘরে বসে করে নিতে পারবেন হোয়াইটনিং ফেসিয়াল।

১। ক্লিনজিং
হোয়াইটনিং ফেসিয়ালের প্রথম ধাপটা হল ক্লিনজিং। প্রথমে মুখ জল দিয়ে ধুয়ে নিন। এরপর মুখ ও গলায় ক্লিনজিং মিল্ক অথবা দুধ দিয়ে ভালভাবে ম্যাসেজ করুন। ৫ মিনিট ম্যাসেজ করার পর তুলো দিয়ে অতিরিক্ত ক্লিনজিং মিল্ক বা দুধ মুছে ফেলুন।

২। ম্যাসেজিং
এবার মুখ ও গলা হোয়াইটেনিং ম্যাসাজ ক্রিম লাগান। এটি ১৫-৩০ মিনিট ধরে ত্বকে ম্যাসাজ করে লাগান। ম্যাসাজ করার সময় কিছুক্ষণ পরপর আঙ্গুলে হালকা ক্রিম নিয়ে আঙ্গুল জলে ভিজিয়ে তারপর ম্যাসাজ করবেন। এতে ম্যাসাজের ধারা বজায় থাকবে। ফেসিয়ালে ম্যাসাজটি বেশ গুরুত্বপূর্ণ। যত ভালো ম্যাসাজ করতে পারবেন মুখ তত উজ্জ্বল দেখাবে, কেননা ম্যাসাজ করলে রক্তপ্রবাহে গতি আসে। ম্যাসাজ শেষে ত্বক ঠান্ডা জলে ভেজানো রুমাল দিয়ে মুছে ফেলুন।

৩। স্ক্রাবিং
ম্যাসেজিং এর পরের ধাপ স্ক্রাবিং। দুই টেবিল চামচ চিনি, দুই টেবিল চামচ মধু এবং একটি লেবুর রস ভাল করে মিশিয়ে নিন। এবার এটি ত্বকে স্ক্রাব হিসেবে ব্যবহার করুন। এটি ত্বকে ২-৩ মিনিট ম্যাসাজ করেন। তারপর ৫ মিনিট রেখে জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। স্ক্রাবিং ত্বকের মৃত কোষ এবং ব্ল্যাক হেডেস দূর করে দেয়।

৪। স্টীমিং
এক বালতি গরম জলে লেবুর রস মিশিয়ে নিন। এবার এটি দিয়ে ত্বকে ৫ মিনিট ভাপ দিন। এটি ত্বকের ছিদ্রের ভেতর থেকে ময়লা বের করে ত্বকের ছিদ্র বন্ধ করে দেয়।

৫। ফেসপ্যাক
স্টীমিং করার পর ত্বকের উপযোগী প্যাক ব্যবহার করুন। দোকানে হোয়াইটনিং ফেসপ্যাক কিনতে পাওয়া যায়। দোকানের ফেসপ্যাক ব্যবহার করতে না চাইলে ঘরে তৈরি করে নিতে পারেন হোয়াইটনিং ফেসপ্যাক।

দুই টেবিল চামচ চন্দন গুঁড়োর সাথে দুধ অথবা গোলাপ জল মিশিয়ে প্যাক তৈরি করুন। শুষ্ক ত্বকের জন্য দুধ তৈলাক্ত ত্বকের জন্য গোলাপ জল প্যাকে ব্যবহার করতে পারেন। এবার প্যাকটি ত্বকে লাগান। এরসাথে চোখ বন্ধ করে উপরে পাতলা শসা/আলুর স্লাইস লাগিয়ে রাখেন। এটি চোখের নিচে কালো দাগ দূর করতে সাহায্য করবে। প্যাক শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

সবশেষে টোনার ব্যবহার করে ফেসিয়াল করা শেষ করুন। নিউট্রোজেনা, লরিয়াল প্যারিসের হোয়াট পারফেক্ট টোনার হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়া হিমালয় হার্বালস, ক্লিন এন ক্লিয়ার ব্র্যান্ডের টোনার ও লাগাতে পারেন। প্রাকৃতিক টোনার হিসেবে গোলাপ জল বেশ কার্যকরী।

আরও পড়ুন ::

Back to top button