রাজ্য

রাজ্যে বালি পাচার রোধে বড় পদক্ষেপ মমতার, আনলেন স্যান্ড মাইনিং নীতি

প্রাকৃতিক সম্পদ লুট আটকাতে বড়সড় পদক্ষেপ রাজ্যের। ঘোষণা করা হল নতুন স্যান্ড মাইনিং পলিসি (এসএমপি)। খননের দায়িত্ব দেওয়া হল মিনারেল মাইনিং কমিটির হাতে। যার ফলে খননের দায়িত্ব আর সংশ্লিষ্ট জেলার জেলাশাসকের হাতে থাকছে না। তাঁদেরকে এই দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হল।

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি এই পলিসি বা নিয়মের কথা ঘোষণা করেছেন। বৃহস্পতিবার নবান্নে রাজ্য মন্ত্রীসভার বৈঠকে বিষয়টি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হওয়ার পর এই এসএমপি চালু করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। খনিজ সম্পদ নিলামের টাকা যাতে কেউ লুট করতে না পারে সেজন্যই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

একইসঙ্গে রাজ্যের কোথাও কোনও বালি বা কয়লা লুট হলে অনলাইনে প্রশাসনের কাছে অভিযোগ জানাতে পারবেন যে কোনও ব্যক্তি। এলাকার প্রাকৃতিক সম্পদ লুট যে কোনওভাবেই বরদাস্ত করা হবে না সেবিষয়ে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন তিনি।

কয়লা এবং বালি পাচার নিয়ে রাজ্যে তৈরি হয়েছে একাধিক বিতর্ক। গত বিধানসভা ভোটের আগে থেকেই কয়লা পাচার কাণ্ডে তদন্তে নেমেছে ইডি বা সিবিআইয়ের মতো কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলি। পাচারে ব্যবসায়ী বা রাজনৈতিক নেতাদের কোনও যোগসাজশ রয়েছে কি না সেবিষয়টিও তদন্তকারীদের আতস কাঁচের তলায় রয়েছে।

এমনকি জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক ব্যানার্জির স্ত্রী’কেও। যা নিয়ে রাজনৈতিক মহলে যথেষ্ট শোরগোল পড়ে গিয়েছিল। সদ্য সমাপ্ত বিধানসভা নির্বাচনের আগে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি কয়লা পাচার নিয়ে শাসকদল তৃণমূলের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক প্রচারও চালিয়েছে।

রাজ্যে তৃতীয়বারের জন্য সরকার গঠন করার পরেই এবিষয়ে কঠোর পদক্ষেপ নিলেন মুখ্যমন্ত্রী। নতুন এসএমপি’র কথা ঘোষণা করে বৃহস্পতিবার স্পষ্ট ভাষায় তিনি জানান, খনির নিলাম থেকে কোনও কোনও অসাধু ব্যবসায়ী বাড়তি মুনাফা করছে। এটা বরদাস্ত করা হবে না। সেইসঙ্গে লুট করা যাবে না স্থানীয় প্রাকৃতিক সম্পদ।

সূত্র: আজকাল

আরও পড়ুন ::

Back to top button