রাজ্য

মাস্ক পরছেন না অর্ধেক রাজ্যবাসী, বলছে সমীক্ষা

মাস্ক পরছেন না অর্ধেক রাজ্যবাসী, বলছে সমীক্ষা - West Bengal News 24

কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউ এখন অনেকটাই স্তিমিত। বিশেষজ্ঞদের আশঙ্কা, খুব শিগগিরই তৃতীয় ঢেউ আসতে চলেছে। ঠিক সেই পরিস্থিতেই মাস্ক পরা নিয়ে চাঞ্চল্যকর ছবি উঠে এল নবান্নের সমীক্ষায়। রাজ্যে কত শতাংশ মানুষ মাস্ক পরছে, তা নিয়ে সমীক্ষা করেছে নবান্ন। সমীক্ষা রিপোর্টে বলা হয়েছে, সব পুলিশ জেলা মিলিয়ে ৬৫০টি এলাকায় এই সমীক্ষা চালানো হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে মাস্ক পরছেন মাত্র ৫১.৬২ শতাংশ মানুষ। এই ৫১.৬২ শতাংশের মধ্যে আবার যথাযথ ভাবে মাস্ক পরছেন ৬৮.৪৪ শতাংশ।

বাকিরা নন। মাস্ক পরার যে তথ্য উঠে এসেছে সমীক্ষা তাতে সবচেয়ে ভয়াবহ ছবি মালদহে। এই জেলায় দেখা যাচ্ছে মাত্র ৩৪ শতাংশ মাস্ক পরে ছিলেন। যারা মাস্ক পরেছিলেন তাঁদের অধিকাংশই আবার যথযথ ভাবে মাস্ক পরেননি। অর্থাত্‍ অনেকেরই মাস্কের দড়ি কানে ঝুললেও তা নাক-মুখ ঢাকা নয়। কারও ঝুলছে থুতনিতে তো কারও মুখ ঢাকা তো নাক খোলা। নবান্নের এই সমীক্ষায় দেখা যাচ্ছে, মাস্ক পরার ক্ষেত্রে সবচেয়ে ভাল ছবি দার্জিলিংয়ে।

পাহাড়ে দেখা যাচ্ছে ৮৭ শতাংশের বেশি মানুষ মাস্ক পরছেন। গত প্রায় দেড়-দু’সপ্তাহ ধরে প্রায়ই দার্জিলিং থাকছে সংক্রমণের শীর্ষে। তবে মাস্ক পরার এই ছবি কিছুটা হলেও স্বস্তির বলে মত অনেকের। সম্প্রতি একটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছিল। লোকাল ট্রেনের বগিতে বসা এক মহিলা একটি ছবি পোস্ট করেছিলেন ফেসবুকে। তাতে দেখা যাচ্ছিল, একজন জিআরপি কর্মী খাকি উর্দি পরে মহিলা কামরার সিটে বসে রয়েছেন অথচ তাঁর মুখে মাস্ক নেই।

সেই ছবি পোস্ট করে ওই তরুণী লিখেছিলেন, পুলিশকর্মীকে তিনি বলেছিলেন মাস্ক পরতে। কিন্তু তিনি নাকি বলেছেন, তাঁর জোড়া ডোজ ভ্যাকসিন নেওয়া রয়েছে। তাই মাস্ক পরার প্রয়োজন নেই। যদিও ভ্যাকসিন নেওয়া থাক বা না থাক—মাস্ক পরা বাধ্যতা মূলক। কিন্তু গোটা রাজ্যে যে ছবি উঠে এসেছে সমীক্ষায় তা নবান্নের কাছে উদ্বেগের বলেই মনে করছেন অনেকে। নবান্নের নির্দেশে জেলা প্রশাসন এই সমীক্ষা করেছে।

সুত্র : দ্য ওয়াল

আরও পড়ুন ::

Back to top button