খেলা

‘সিন্ধু ভারতের গর্ব’। সিন্ধু বন্দনায় সোশ্যাল মিডিয়ায় মোদী-মমতা-সচিন আরও অনেকে

‘সিন্ধু ভারতের গর্ব’। পিভি সিন্ধুর হাত ধরে ভারত অলিম্পিকে ব্রোঞ্জ জিততেই টুইটারে শুভেচ্ছা বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এ ছাড়়াও রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ, কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী কিরণ রিজিজুও টুইট করেছেন।

প্রধানমন্ত্রী টুইটারে লিখেছেন, ‘পিভি সিন্ধুর এই অপূর্ব খেলা দেখে আমরা গর্বিত। টোকিয়ো অলিম্পিক্সে ব্রোঞ্জ জয়ের জন্য তাঁকে অনেক শ‌ুভেচ্ছা। সিন্ধু ভারতের গর্ব এবং আমাদের অন্যতম শ্রেষ্ঠ অলিম্পিয়ান।’ সিন্ধুর প্রশংসা করলেন রামনাথ কোবিন্দও। তিনি টুইটার বার্তায় লিখলেন, ‘পর পর দু’টি অলিম্পিক গেমসে পদক জেতা প্রথম ভারতীয় মহিলা সিন্ধু। ধারাবাহিকতা, নিষ্ঠা এবং শ্রেষ্ঠত্বের নতুন মাপকাঠি স্থাপন করলেন তিনি। ভারতকে গর্বিত করার জন্য তাঁকে আন্তরিক অভিনন্দন।’

টুইট করলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। তিনি লেখেন, ‘টোকিয়ো অলিম্পিকে আপনার ব্রোঞ্জ জয়ে আমরা গর্বিত।আপনার কঠোর পরিশ্রম এবং নিষ্ঠা সকলের জন্য অনুপ্রেরণা। আপনাকে আমার আন্তরিক অভিনন্দন।’


ক্রিকেটের কিংবদন্তি সচিন তেন্ডুলকর টুইটারে লেখেন, “২০১৬-তে রুপো এবং ২০২০-তে ব্রোঞ্জ। অলিম্পিকে দু’বার পদক পাওয়া পিভি সিন্ধুর দারুণ প্রাপ্তি। তুমি পুরো দেশকে অনেক অনেক গর্বিত করলে।”

কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী কিরণ রিজিজু টুইটার বার্তায় লেখেন, ‘টোকিয়ো অলিম্পিক্সে ভারতের তৃতীয় পদক জয়। আপনার ব্রোঞ্জ জয়, দ্বিতীয় অলিম্পিক পদক জয় এবং ভারতের গর্বিত করার জন্য আন্তরিক অভিনন্দন।’

কেন্দ্রীয় বাণিজ্যমন্ত্রী পীয়ূষ গয়াল লেখেন, ‘প্রথম ভারতীয় মহিলা, যিনি জোড়া পদক জিতলেন। আপনার ব্রোঞ্জ জয় গোটা দেশকেই চাঙ্গা করে তুলল।’

রবিবার ব্রোঞ্জের লড়াইয়ে চিনের হি বিংজিয়ায়োকে হারিয়ে দিলেন সিন্ধু। খেলার ফল ২১-১৩, ২১-১৫। সুশীল কুমারের পর দ্বিতীয় ভারতীয় হিসেবে অলিম্পিক্সে দ্বিতীয় পদক সিন্ধুর।

সূত্র : আনন্দবাজার

আরও পড়ুন ::

Back to top button