জাতীয়

সোশাল মিডিয়া হল ‘বেলাগাম ঘোড়া’ তাকে নিয়ন্ত্রণ করা দরকার, বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের নির্দেশ আদিত্যনাথের

পেগাসাস নিয়ে বিরোধীদের প্রচারের জবাব দিতে হবে অবিলম্বে। সেজন্য কোনও শুভ মুহূর্তের অপেক্ষা করলে চলবে না। শুক্রবার বিজেপির আইটি সেলের কর্মীদের এমনই নির্দেশ দিলেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। এদিন তিনি লখনউতে বিজেপির সোশ্যাল মিডিয়া ও তথ্যপ্রযুক্তি শাখার বৈঠকে বক্তব্য পেশ করেন। তাঁর মতে, সোশ্যাল মিডিয়া হল ‘বেলাগাম ঘোড়া’। তাকে নিয়ন্ত্রণ করার জন্য বিজেপির আইটি সেলের কর্মীদের উপযুক্ত প্রশিক্ষণ নিতে হবে।

দলীয় কর্মীদের সতর্ক করে যোগী বলেন, তাঁরা যেন মিডিয়ার প্রচারে প্রভাবিত না হন। তিনি জানান, সমীক্ষা করে দেখা গিয়েছে, উত্তরপ্রদেশের কোনও স্থানীয় ঘটনা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়। যাদের সঙ্গে উত্তরপ্রদেশের কোনও সম্পর্ক নেই, তারাও বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে সুর চড়ায়। এই প্রসঙ্গেই তিনি বলেন, পেগাসাস নিয়ে মিডিয়ায় যে প্রচার হচ্ছে, আইটি কর্মীরা অবিলম্বে তার জবাব দিন।

কোনও শুভ মুহূর্তের জন্য অপেক্ষা করবেন না। যোগী বলেন, একসময় গণমাধ্যম হিসাবে সংবাদপত্র ও টিভি ছিল খুব শক্তিশালী। খবরের কাগজ ও টিভি চ্যানেলের মালিক থাকত। তারা গণমাধ্যমকে নিয়ন্ত্রণ করত। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়াকে নিয়ন্ত্রণ করার কেউ নেই। বিজেপি কর্মীরা যদি সতর্ক না থাকেন, তাহলে মিডিয়ার দ্বারা প্রভাবিত হবেন। সেজন্য আমাদের সোশ্যাল মিডিয়াকে নিয়ন্ত্রণ করা শিখতে হবে।

আগামী বছরেই ভোট হবে উত্তরপ্রদেশে। তার আগে যোগীর ঢালাও প্রশংসা করেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। ইতিমধ্যে ‘মিশন ইউপি’ পরিকল্পনা নিয়ে ফেলেছে বিজেপি। একের পর এক নেতা রাজ্য সফরে যাচ্ছেন। এর মধ্যে অমিত শাহ দাবি করেন, উত্তরপ্রদেশে ব্যাপক সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় ফিরবে বিজেপি। বিরোধীরা যেন এখন থেকেই পরাজয়ের প্রস্তুতি শুরু করে দেন।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমি ২০১৯ সাল পর্যন্ত টানা ছ’বছর ধরে উত্তরপ্রদেশে এসেছি বারবার। তাই আগের উত্তরপ্রদেশেকেও আমি খুব ভাল করেই জানি। পশ্চিম উত্তরপ্রদেশে সবসময় একটা ভয়ের পরিবেশ ছিল। সবাই ওই এলাকা ছেড়ে চলে যাচ্ছিলেন। মহিলারা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছিলেন, জমি মাফিয়ারা দরিদ্র মানুষের জমি দখল করে নিচ্ছিল।

দিনের আলোয় গুলি চালানোর ঘটনা, দাঙ্গা-মারপিটের ঘটনা ঘটত।’ এখন সে চিত্র বদলে গেছে বলে দাবি করেন তিনি। তিনি আরও বলেন, ‘২০১৭ সালে বিজেপি প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, উত্তরপ্রদেশকে উন্নত রাজ‍্য বানানোর। আমরা বলেছিলাম, রাজ‍্যের আইনশৃঙ্খলা সংস্কার করব। আজ, ২০২১ সালে, আমি গর্বের সঙ্গে বলতে পারি, যোগী আদিত্যনাথ ও তাঁর দল আইনশৃঙ্খলার ক্ষেত্রে উত্তরপ্রদেশকে শীর্ষ স্থানে নিয়ে গেছে।’

সুত্র : দ্য ওয়াল

আরও পড়ুন ::

Back to top button