ত্রিপুরা

নেই বিদ্যুৎ সংযোগ, অর্ডার দিয়েও পাওয়া গেল না খাবার, ত্রিপুরায় গিয়ে হেনস্থার শিকার সায়নী

কথায় বলে ‘অতিথি নারায়ণ’। কিন্তু ত্রিপুরায় (tripura) গিয়ে সেই ‘নারায়ণ সেবা’র এক ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতার সাক্ষী থাকলেন তৃণমূলের যুব নেত্রী সায়নী ঘোষ (Saayoni Ghosh)। দীর্ঘক্ষণ বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন থাকল পাঁচতারা হোটেলে, অর্ডার দিয়েও পাওয়া গেল না খাবার।

ত্রিপুরা জয়ের লক্ষ্যে মাঠে নেমে পড়েছে তৃণমূল। সেই মর্মে প্রায় দিনই কোন না কোন সবুজ শিবিরের নেতৃত্ব পাড়ি দিচ্ছে ত্রিপুয়ার উদ্দেশ্যে। আর সেখানে গিয়ে হতে হচ্ছে, নানারকম হেনস্থার শিকারও। এবার সেখানে গিয়ে হেনস্থার শিকার হলেন তৃণমূলের যুব নেত্রী সায়নী ঘোষ। স্যোশাল মিডিয়ায় উগরে দিলেন একরাশ ক্ষোভ।

আরো পড়ুন : ‘তালিবানি শাসন শুরু হয়েছে বাংলায়’! সজল ঘোষের বাড়িতে বিস্ফোরক দিলীপ ঘোষ

ত্রিপুরায় গিয়ে সায়নী যে পাঁচতারা হোটেলে উঠেছে, সেই হটেলেই নাকি মাঝরাতে বিদ্যুৎ বিয়োগ করে দেওয়া হয়েছে। এমনকি ৪-৫ জন একসঙ্গে টেবিলে বসে খাওয়ার সময় আলোচনা করলেও, তা এসে আটকে দিচ্ছে কর্তৃপক্ষ। খাবারের অর্ডার দিলেও, তা নাকি বাতিল করে দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন সায়নী।

মঙ্গলবার গভীর রাতে নিজের ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে একটি ভিডিও শেয়ার করে সায়নী বলেন, ‘মাঝরাতে পাঁচতারা হোটেলে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। আমার জীবনে দেখা এই প্রথম অভিজ্ঞতা, যে পাঁচতারা হোটেলে বিদ্যুৎ সংযোগ ব্যাহত হচ্ছে। মাঝে মধ্যেই কারেন্ট অফ করে দেওয়া হচ্ছে। চিন্তার কিছু নেই, খেলা হবে’।

এছাড়াও সায়নী দাবি করেছেন, ‘মঙ্গলবার দুপুরেও প্রায় ২ ঘণ্টা ৩০ মিনিট ধরে কারেন্ট ছিল না। এমনকি চা কফির অর্ডার দিয়ে নিজেদের মধ্যে আলোচনা করার সময়, বিজেপির চর এসে বলছে- নিজেদের মধ্যে রাজনৈতিক আলোচনা করা যাবে না’।

সূত্র : বাংলা হান্ট

আরও পড়ুন ::

Back to top button