টলিউডবলিউড

‘কারোর অনুভূতিতে আঘাত করার জন্য দুঃখিত’, ফ্যামিলি ম্যান’ বিতর্কে ক্ষমা চাইলেন সামান্থা

Samantha Akkineni : ‘কারোর অনুভূতিতে আঘাত করার জন্য দুঃখিত’, ফ্যামিলি ম্যান’ বিতর্কে ক্ষমা চাইলেন সামান্থা - West Bengal News 24

দক্ষিণী চলচ্চিত্রের অভিনেত্রীদের মধ্যে নিজের অভিনয় দক্ষতার পরিচয় দিয়েছেন বারবার। সামান্থা আক্কিনেনির (Samantha Akkineni) অভূতপূর্ব ভাবভঙ্গি এবং নিপুণ সংলাপ বলার ধরন দর্শকদের মনের কাছে পৌঁছেছে সবসময়ই। নিজের প্রতিটা চরিত্রে একদম পারফেক্ট অভিনেত্রী।

কিন্তু ‘ফ্যামিল ম্যান ২’ (Family Man 2) সিরিজে তাঁর তামিল বিদ্রোহীর চরিত্রের জন্য নানা সমালোচনা-কটাক্ষের শিকার হতে হয়েছিল সামান্থাকে। এবার সেই প্রেক্ষিতেই ক্ষমা চেয়ে নিলেন অভিনেত্রী। বললেন, ‘দুঃখিত ভাবাবেগে আঘাত করার জন্য। কিন্তু জ্ঞানত কাউকে আঘাত করতে চাইনি।’

বিগত কয়েক মাস ধরেই ডিজিটাল প্লাটফর্মে তুমুল সাড়া ফেলেছে মনোজ বাজপেয়ী (Manij Bajpayee) অভিনীত ‘দ্য ফ্যামিলি ম্যান ২’। শট সিকোয়েন্স থেকে অভিনয় দক্ষতায় বহু প্রশংসা ছড়িয়ে পড়েছে নেটদুনিয়ায়। এই সিরিজের সুবাদেই সামান্থা নিজের ডিজিটাল ডেবিউ করেন। এবং যথারীতি মুখাভঙ্গী থেকে বডি ল্যাঙ্গুয়েজ, অভিনেত্রী তার অসামান্য অভিনয়ের মাধ্যমে যেমন লক্ষ সিনেদর্শকদের মনে জায়গা করেছেন তেমনই ভূষিত হয়েছেন নানান পুরস্কারে।

আরো পড়ুন : ৫৬ বছরে এসে তৃতীয়বার বিয়ের পিঁড়িতে প্রকাশ রাজ,পাত্রী কে? জানলে চমকে যাবেন!

সামান্থা, সিরিজে অভিনয় করেন শ্রীলঙ্কার একজন তামিল বিদ্রোহীর চরিত্রে। এবং সেখানেই সমস্যার সূত্রপাত হয়েছিল। সামান্থা নিজে একজন দক্ষিণী অভিনেত্রী হয়েও সেই জায়গায় তাঁর তামিল সংস্কৃতির প্রতি এরূপ চরিত্রায়ণকে অপমানসূচক বলে নিন্দা করেছেন তামিলনাড়ু সরকার, এমনকী শো বন্ধ করার আর্জি পর্যন্ত জানিয়েছিলেন তাঁরা।

পূর্বে তামিলনাড়ুর তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী টি মনোথাঙ্গারাজ ফ্যামিলি ম্যান ২ -এর মুক্তির আগে একটি চিঠিতে লিখেছিলেন যে, এই সিরিজটি কেবল ইলম তামিলদের অনুভূতি নয়, তামিলনাড়ুর মানুষের অনুভূতিতেও আঘাত করেছে।

তবে এই ঘটনা চোখ এড়ায়নি অভিনেত্রীর। এই প্রসঙ্গে যথেষ্ট হতাশ হয়েছেন তিনি। এক সাক্ষাত্‍কারে তিনি সকল দর্শকদের কাছে ক্ষমাপ্রার্থনা করেন। তিনি বলেন, ‘সকলের নিজস্ব মতামত দেওয়ার অনুমতি রয়েছে। এবং আমার সিদ্ধান্তে যারা পাশে থাকছেন তাদেরও ধন্যবাদ। কারোর অনুভূতিতে আঘাত করার জন্য দুঃখিত।

আরো পড়ুন : ‘ভারতে এসে প্রাণে বাঁচলাম’, তালিবানের ভয়ে দেশ ছাড়েন সালমানের নায়িকা ওয়ারিনা

কারণ এমন কিছু করার অভিপ্রায় আমার ছিল না, যা মানুষকে আঘাত করবে। সিরিজটি মুক্তি পাওয়ার পরে অনেকেই দেখে তাঁর প্রশংসা করেছেন, তাঁদের এত খারাপও লাগেনি তাই যাঁরা এখনও দেখেননি তারা আগে দেখুন এবং তারপরে নিজের মতামত জানান। রাগ পুষে রাখবেন না,আমি আন্তরিক ভাবে দুঃখিত।’

যদিও পূর্বে নির্মাতা রাজ এবং ডিকে বলেছিলেন, ‘সিরিজে চিত্রিত ‘রাজি’ কেবলমাত্র তার গুরুত্ব এবং মাত্রা বাড়াতেই এই চরিত্রের বাস্তবায়ন। তামিল জনগণের অনুভূতি এবং তামিল সংস্কৃতির ব্যাপারে আমরা খুবই সচেতন এবং আমাদের তামিল জনগণের প্রতি পরম ভালোবাসা এবং শ্রদ্ধা ছাড়া আর কিছুই নেই।

আরো পড়ুন : ‘ঘুষ’ নিতে অস্বীকার ! পরিবর্তে পুলিশকে প্রকাশ্যে ‘চুমু’ মহিলার, ভিডিও ভাইরাল

আমরা এই শোতে বহু বছর ধরে কঠোর পরিশ্রম করেছি। দর্শকদের কাছে একটি সংবেদনশীল, ভারসাম্যপূর্ণ এবং আকর্ষণীয় গল্প নিয়ে আসার জন্য অনেক ভাবনা চিন্তা এবং দিনের পর দিন কষ্ট করে গেছে সব কলাকুশলীরা। সকলের কাছে অনুরোধ শো দেখুন, তারপরেই বিচার করুন সঠিক এবং বেঠিক এর মারপ্যাঁচ।’

সূত্র: দি ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

মন্তব্য করুন ..

আরও পড়ুন ::

Back to top button