বর্ধমান

‘দুয়ারে সরকার’ ক্যাম্পের ভিড়ে দঁড়িয়ে তীব্র শ্বাসকষ্ট! অসুস্থকে টোটোয় চাপিয়ে বিধায়ক ছুটলেন হাসপাতাল

‘দুয়ারে সরকার’ ক্যাম্পের ভিড়ে দঁড়িয়ে তীব্র শ্বাসকষ্ট! অসুস্থকে টোটোয় চাপিয়ে বিধায়ক ছুটলেন হাসপাতাল - West Bengal News 24

রাজ্যজুড়ে চলছে ‘দুয়ারে সরকার’ এর ক্যাম্প। আর সেই ক্যাম্পে ঠাসা ভিড় হচ্ছে। করোনা বিধি না থাকলেও ফর্ম পূরণের হিড়িক রয়েছে সর্বত্র। বিশেষত ‘লক্ষীর ভাণ্ডার’-এর ফর্ম ফিলআপ করার জন্য ভিড় বেশি হচ্ছে বলে জানা যাচ্ছে। এর মাঝেই এক অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে আসানসোলের দুর্গাপুর ফরিদপুর ব্লকের লাউদোহা উচ্চ বিদ্যালয়ে।

সকাল থেকেই ওই স্কুলের ক্যাম্পে ভিড় ছিল ঠাসা। তার মধ্যেই লাইনে দাঁড়িয়েছিল এক প্রৌঢ়া। তিনি আবার হার্টের রোগী। আর তারপরেই ঠাসা ভিড়ে আচমকাই অসুস্থ হয়ে পড়েন ওই মহিলা। জ্ঞাণ হারিয়ে মাঠেই পড়ে যান। আর তাঁকে নিয়েই তখন হইচই পড়ে যায় ক্যাম্পের মধ্যে।

আরো পড়ুন : মায়ের মৃত্যু হয়েছে তিন দিন আগে, দেহ সত্‍কার না করে বাড়ি তালাবন্ধ করে পালিয়ে গেল ছেলে

এই পরিস্থিতিতে কিছু বুঝতে না পেরেই কান্নায় ভেঙে পড়েন তাঁর বাড়ির লোক। ঘটনার খবর পেয়েই ক্যাম্পে দ্রুত দৌড়ে যান পাণ্ডবেশ্বরের বিধায়ক নরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী। ভিড়ের চাপে হাঁসফাস করতে শুরু করা মহিলাকে, দ্রুত টোটো করে চাপিয়ে নিকটবর্তী হাসপাতালে নিয়ে যান এলাকার বিধায়ক।

নিজে টোটোর বাড়ির সামনে বসে ওই মহিলার দ্রুত চিকিত্‍সার ব্যবস্থা করতে হাসপাতালে যান। টোটোতে যেতে যেতেই হাসপাতালের চিকিত্‍সার বিভিন্ন ব্যবস্থা ফোন করে রেডি করতে বলেন। তারপরেই বিধায়কের তত্‍পরতায় দ্রুত হাসপাতালে ভর্তি হন ওই অসুস্থ মহিলা।

আরো পড়ুন : করোনার তৃতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার আগে সচেতনতাকে গুরুত্বপূর্ণ করতে বাউল গানের মধ্য দিয়ে প্রচার স্বপন দত্ত বাউলের

এই ঘটনা প্রসঙ্গে বিধায়ক জানিয়েছেন, ‘ভদ্রমহিলা হার্টের পেশেন্ট। লক্ষ্মীর ভাণ্ডারে লাইনে দাঁড়িয়ে ছিলেন। সাভোকেশনে হঠাত্‍ ওনার কষ্ট শুরু হয়। আমরা সামনেই ছিলাম। সঙ্গে সঙ্গে ওঁনাকে তুলে নিয়ে এসেছি। সবাই মিলে হাসপাতালে নিয়ে এসেছি। আপাতত চিকিত্‍সকদের তত্ত্বাবধানে আছেন। অক্সিজেন চলছে। এঁরা আমার আত্মীয়। ভগবানকে ডাকুন উনি যেন শীঘ্র সুস্থ হয়ে যান।’

সূত্র: টিভি ৯

মন্তব্য করুন ..

আরও পড়ুন ::

Back to top button