জাতীয়

মথুরা-বৃন্দাবনকে তীর্থস্থল ঘোষণা করলেন যোগী আদিত্যনাথ, নিষিদ্ধ হল মদ-মাংসের বিক্রি

মথুরা-বৃন্দাবনের (mathura-vrindavan) ১০ বর্গকিমি এলাকাকে তীর্থক্ষেত্র (tourist centre) বলে ঘোষণার পর সেখানে মাংস, মদ (meat, alchohol sale) বিক্রির ওপর নিষেধাজ্ঞার (ban) সিদ্ধান্ত ঘোষণা করল উত্তরপ্রদেশ সরকার (up government)।

এলাকাটি শ্রীকৃষ্ণ জন্মভূমির আশপাশের। ঘটনাচক্রে দেশব্যাপী গণেশ চতুর্থী পালনের দিনই মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তর (সিএমও) থেকে এই ঘোষণা করা হল। ঘোষণায় বলা হয়েছে, সংশ্লিষ্ট নিষেধাজ্ঞার আওতাভুক্ত এলাকায় পড়ছে ২২টি ওয়ার্ড। সবকটি ওয়ার্ডকে তীর্থকেন্দ্রের মর্যাদা দেওয়া হয়েছে। মথুরা-বৃন্দাবনে মদ, মাংস বিক্রি নিষিদ্ধ করার ঘোষণা প্রথম করেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ, গত মাসে।

আরও পড়ুন : ‘ঘর সামলাতে পারে না, অথচ জমিদারি হাবভাব’, কংগ্রেসকে তোপ শরদ পওয়ারের

মুখ্যমন্ত্রী মথুরায় তাঁর ভাষণে বলেন, যারা মদ, মাংস বিক্রি করছে, তারা এখন থেকে দুধ বিক্রি করুন, যাতে মথুরার গৌরব ফেরে। মথুরায় প্রচুর পরিমাণে দুগ্ধ উত্পাদন হয়। নিষেধাজ্ঞা কার্যকরার প্ল্যান তৈরি করতেও তিনি প্রশাসনিক কর্তাদের নির্দেশ দেন। বলেন, সাধু-সন্ত ও জনপ্রতিনিধিদের মত, এখানে মদ, মাংস খাওয়া উচিত নয়।

যারা এই ব্যবসায় জড়িত, তাদের পেশা বদলাতে বোঝানোর জন্য কাউন্সেলিং, প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করুক প্রশাসন। ব্রজ এলাকার সাধুসন্তদের দাবি, আবেগ মাথায় রেখেই মদ, মাংস বিক্রির সিদ্ধান্ত নেওয়া হল বলে জানান আদিত্যনাথ। মথুরা সফরে আদিত্যনাথ নোভেল করোনাভাইরাস নির্মূল করার আবেদন জানান শ্রীকৃষ্ণের কাছে। তিনি বলেন, ব্রিজ ভূমির উন্নয়নে প্রতিটি প্রয়াস চালানো হবে। অর্থের অভাবে হবে না। আমরা এলাকার উন্নয়নে আধুনিক প্রযুক্তির সঙ্গে:P সাংস্কৃতিক ও আধ্যাত্মিক ঐতিহ্যের মিশেল ঘটাতে চাইছি।

সূত্র: দ্য ওয়াল

আরও পড়ুন ::

Back to top button