রাজ্য

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে সংক্রমিত ৬৮৩ জন, ঊর্ধ্বমুখী সুস্থতার হার

নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা বাড়তেই রাজ্যে ফের ঊর্ধ্বমুখী হয়ে উঠল করোনার দৈনিক সংক্রমণ। তবে দৈনিক সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী হলেও দৈনিক মৃত্যু অবশ্য আগের দিনের চেয়ে সামান্য কমেছে। দৈনিক শনাক্তের হার অবশ্য সামান্য বেড়েছে। একদিনে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৬৮৩ জন। আর প্রাণ হারিয়েছেন ১৩ জন। দৈনিক শনাক্তের হার দাঁড়িয়েছে ১ দশমিক ৮৪ শতাংশে।

বুধবার সন্ধ্যায় রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতরের পক্ষ থেকে প্রকাশিত করোনা বুলেটিন অনুযায়ী, ‘গত ২৪ ঘন্টায় ৩৭ হাজার ১৮১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এ নিয়ে রাজ্যে এখনও পর্যন্ত ১ কোটি ৭৮ লক্ষ ৩৪ হাজার ৩২৩টি নমুনা পরীক্ষা করা হল। নয়া নমুনা পরীক্ষায় ৬৮৩ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে রাজ্যে মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হলেন ১৫ লক্ষ ৬৩ হাজার ৩৯৩ জন। নমুনা পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের হার অর্থা‍ত্‍ পজিটিভিটি রেট দাঁড়িয়েছে ১ দশমিক ৮৪ শতাংশে।’

আরও পড়ুন : কাজ না করে কোনও টাকা নেব না, টুইট বাবুলের

দৈনিক সংক্রমণ বৃদ্ধি পেলেও দৈনিক মৃত্যু আগের দিনের তুলনায় হ্রাস পেয়েছে। মারণ ভাইরাসের ছোবলে একদিনে মৃত্যুমিছিলে সামিল হয়েছেন আরও ১৩ জন। যার ফলে রাজ্যে এ নিয়ে করোনার বলি হলেন ১৮ হাজার ৬৯১ জন। গত ২৪ ঘন্টায় সর্বাধিক মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনায়। বাংলাদেশ সীমান্ত লাগোয়া জেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন ৫ জন। কলকাতা ও হাওড়ায় তিন জন করে এবং হুগলি ও নদিয়ায় একজন করে প্রাণ হারিয়েছেন।

স্বাস্থ্য দফতরের তথ্য অনুযায়ী, ‘রাজ্যে গত ২৪ ঘন্টায় করোনাকে হারিয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৬৮৭ জন। এ নিয়ে রাজ্যে করোনা জয়ীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১৫ লক্ষ ৩৬ হাজার ৯৭৮ জনে। সুস্থতার হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯৮ দশমিক ৩১ শথাংশে। একদিনে অ্যাকটিভ কেসের সংখ্যা কমেছে ১৭টি। যার ফলে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা কমে দাঁড়িয়েছে ৭ হাজার ৭২৪ জন।

সূত্র: এই মুহুর্তে

আরও পড়ুন ::

Back to top button