মুর্শিদাবাদ

ভোটের আগের দিন রাতে তৃণমূল কর্মীর বাড়িতে বোমাবাজি, গ্রেপ্তার দলেরই নেতা আনারুল হক

বুধবার রাতে সামশেরগঞ্জের কাকুরিয়ার ঘনশ্যামপুরে এক তৃণমূল কর্মীর বাড়িতে বোমাবাজি। এই ঘটনায় জেলা পরিষদের স্বাস্থ্য কর্মাধ্যক্ষ তৃণমূল নেতা আনারুল হক ওরফে বিপ্লবকে আটক করল পুলিশ। বুধবার রাতে তৃণমূল কর্মী জিয়াউর রহমানের বাড়িতে হামলার অভিযোগে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে খবর। আনারুল সম্পর্কে সমশেরগঞ্জের কংগ্রেস প্রার্থী জইদুর রহমানের ভাইপো। তবে আনারুল তৃণমূলের একজন নেতা।

ঘটনা প্রসঙ্গে সামশেরগঞ্জের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী আমিরুল ইসলাম জানান, ‘‌আমাদের কর্মী-সমর্থক জিয়াউর রহমানের বাড়িতে গতকাল রাত দুটো নাগাদ হামলা চালায় মুর্শিদাবাদ জেলা পরিষদের স্বাস্থ্য কর্মাধ্যক্ষ আনারুল হক ও তার গুন্ডাবাহিনী। এই হামলার নেতৃত্ব দিয়েছেন কংগ্রেস প্রার্থী জইদুর রহমান।

আরও পড়ুন : ‘ঘরে বসে ফেসবুক-টুইটারের রাজনীতি চলবে না’: অভিষেক

তাদের হাতে ছিল পিস্তল, মাস্কেট বোমা ও অন্যান্য অস্ত্রশস্ত্র। দুষ্কৃতীরা শুধুমাত্র জিয়াউর রহমানই নয় তার পরিবারের লোকজনের ওপর আক্রমণ করেন এবং তাদেরকে প্রাণে মারার হুমকি দেন।’‌ এই ঘটনার পর থেকে আক্রান্ত তৃণমূল কর্মী জিয়াউর রহমান ও তাঁর পরিবারের লোকজন আতঙ্কে রয়েছেন।

এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে বৃহস্পতিবার সকালে মুর্শিদাবাদ জেলা জেলা পরিষদের স্বাস্থ্য কর্মাধ্যক্ষ আনারুল হককে তাঁর নিজের বাড়ি থেকে আটক করেছে সামশেরগঞ্জ থানার পুলিশ। যদিও এই প্রসঙ্গে কংগ্রেস প্রার্থী জইদুর রহমান জানান, ‘‌আমাদের কোনও কংগ্রেস কর্মী এই হামলার সঙ্গে যুক্ত নয়। এটি তৃণমূলের অন্তর্দ্বন্দ্বের ফল। ভোট শুরুর আগে তৃণমূল কংগ্রেস আমাদের বদনাম করতে চাইছে।’‌

সূত্র: আজকাল

আরও পড়ুন ::

Back to top button