রাজনীতি

‘দলের ভাঙন সামলান’, বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্বের নির্দেশ সুকান্তকে

বাবুল সুপ্রিয় দল ছেড়েছেন। আরও অনেক বিজেপি নেতা-নেত্রীকে নিয়েও দলবদলের জল্পনা রয়েছে। এই পরিস্থিতিতেই দিল্লিতে শীর্ষ নেতৃত্ব ডেকে পাঠিয়েছিল নয়া বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারকে। বৈঠকে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ থেকে শুরু করে দলের সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা, সাধারণ সম্পাদক (সংগঠন) বিএল সন্তোষের মতো নেতাদের সঙ্গে সুকান্তর বিজেপির বাংলায় ভাঙনের বিষয়ে আলোচনা হয়েছে বলে জানা গেছে। দিল্লি সফর সেরে বুধবার দুপুরেই রাজ্যে ফিরেছেন সুকান্ত।

মঙ্গলবারই দলের শীর্ষনেতাদের সঙ্গে সাক্ষাত্‍পর্ব সেরেছেন। সুকান্ত অবশ্য এই সাক্ষাত্‍পর্বকে সৌজন্য বলে দাবি করেছেন। সূত্র মারফত জানা গেছে নাড্ডার সঙ্গে সুকান্তর বৈঠকে বাবুল সুপ্রিয়র দলবদলের প্রসঙ্গ উঠেছে। আগামী দিনে যাতে সংখ্যাটি না বাড়ে সেই বিষয়টিকেও গুরুত্ব দিয়ে দেখার জন্য সুকান্তকে বাড়তি দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এরই মধ্যে শুক্রবার আবার সুকান্ত রাজ্য বিধানসভায় বিজেপির পরিষদীয় দলের সদস্যদের সঙ্গে বৈঠক করবেন।

আরও পড়ুন : মদন আছেন কোথায়, বুথে না বিছানায়? প্রার্থী ও এজেন্ট ভিন্নমত!‌

সুকান্ত আবার যেমন বলেছেন, ‘‌বিজেপির নীতি-আদর্শে যাঁরা বিশ্বাস করেন, তাঁদের ফিরে আসার কথা বলব। তাঁরা ফিরে আসুন, একসঙ্গে লড়াই করব। তবে, ব‌্যক্তিস্বার্থ নিয়ে যারা আসতে চান, তাঁদের আমরা চাই না।’‌

এর পাশাপাশি মুকুল রায়, বাবুল সুপ্রিয়রা দল ছেড়ে চলে যাওয়ায় বিজেপির কোনও ক্ষতি হয়নি বলে দাবি করেছেন নতুন রাজ্য সভাপতি। পাশাপাশি কটাক্ষ করে সুকান্ত বলেছেন, ‘‌যাঁরা চলে গিয়েছেন তাঁরা থাকলে দল শক্তিশালী হত। তবে, খুব বেশি ক্ষতি হবে না। সাংগঠনিকভাবে কোনও ক্ষতি হয়নি দলের।’‌

সূত্র: আজকাল

আরও পড়ুন ::

Back to top button