জাতীয়

লখিমপুর হিংসায় প্রমাণ ছাড়া কাউকে গ্রেফতার নয়, জানিয়ে দিলেন যোগী

লখিমপুরের হিংসার ঘটনা নিয়ে মুখ খুললেন উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ । শুক্রবারই তিনি জানান, লখিমপুরের ঘটনায় বিনা প্রমাণে কাউকেই গ্রেফতার করা হবে না। একইসঙ্গে বিরোধীরা যারা মৃত কৃষকদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে যাচ্ছেন, তাদেরও কটাক্ষ করে বললেন যে, তারা কোনও ভাল বার্তা দিতে যাচ্ছে না।

গত রবিবার উত্তর প্রদেশের লখিমপুর খেরিতে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার কথা ছিল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অজয় কুমর মিশ্র ও উপমুখ্যমন্ত্রী কেশব মৌর্য্যের। মন্ত্রীদের আসার পথেই বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন কৃষকরা। আচমকাই কনভয় থেকে একটি কালো রঙের এসইউভি গাড়ি কৃষকদের ধাক্কা মারে। এরপরই সংঘর্ষ শুরু হয়। ঘটনায় ৪ কৃষক সহ মোট ৮ জনের মৃত্যু হয়। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই উত্তাল হয়ে ওঠে জাতীয় রাজনীতি।

গতকাল একটি অনুষ্ঠানে উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “আইনের চোখে সকলেই সমান এবং সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী, বিনা প্রমাণে কাউকেই গ্রেফতার করা যায় না। গোটা ঘটনার তদন্ত চলছে। লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে এফআইআরও দায়ের করা হয়েছে এবং অভিযোগ প্রমাণিত হলে কাউকে রেহাই দেওয়া হবে না। সকলেই সুবিচার পাবেন, তবে চাপের মুখে পড়ে কোনও অনৈতিক সিদ্ধান্ত বা পদক্ষেপ করা হবে না।”

আরও পড়ুন : অবশেষে উত্তর প্রদেশ পুলিশের ক্রাইমব্রাঞ্চে হাজিরা দিলেন আশিস মিশ্র

তিনি আরও বলেন, “গণতন্ত্রে হিংসার কোনও জায়গা নেই। যেখানে আইন সকলকে সুরক্ষা দেওয়ার জন্য রয়েছে, সেখানে অনুরোধ করব, কারোর আইন নিজের হাতে তুলে নেওয়ার জায়গা নেই।”

বিরোধীদের আক্রমণ করে তিনি বলেন, “কেউ ভাল বার্তা দিতে যাচ্ছেন না। আমাদের সরকারের প্রধান লক্ষ্য হল শান্তি ও সম্প্রীতি বজায় রাখা। লখিমপুর খেরিতে যেতে চেয়েছেন, তাদের মধ্যে এমন অনেকেই রয়েছেন, যারা ওই ঘটনার সঙ্গে জড়িত। আপাতত এই বিষয়ে তদন্ত চলছে।”

বিজেপি নেতা তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ছেলেকে বাঁচানোর চেষ্টা করছে সরকার, এই অভিযোগের জবাবে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “এইধরনের কোনও ভিডিয়ো নেই যেখানে মন্ত্রীর ছেলেকে দেখা গিয়েছে। আমরা একটি বিশেষ নম্বরও চালু করেছি, যদি কারোর কাছে প্রমাণ থাকে, তবে তা পাঠিয়ে দিন। কোনও অন্যায় বিচার হবে না এবং কাউকে নিজের হাতে আইন তুলে নিতেও দেওয়া হবে না। আমরা কাউকে স্রেফ অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেফতার করব না। তবে কেউ যদি অপরাধী হিসাবে প্রমাণিত হয়, তবে তাঁকে রেহাই দেওয়া হবে না।”

আরও পড়ুন : রেকর্ড হারে কমছে সংক্রমণ, ১৯ হাজারে নামল দেশের দৈনিক সংক্রমণ

বৃহস্পতিবার থেকেই সুপ্রিম কোর্টে (Supreme Court) লখিমপুর মামলার শুনানি শুরু হয়েছে। শুনানির প্রথমদিন শীর্ষ আদালতের তরফে উত্তর প্রদেশ সরকারকে এফআইআরের যাবতীয় তথ্য, মৃত আটজন সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য় সহ মামলার যাবতীয় গতিপ্রকৃতি নিয়ে একটি রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছিল। গতকাল সেই রিপোর্ট জমা দেয় রাজ্য সরকার।

এ দিকে, বৃহস্পতিবারই পুলিশ লখিমপুরকাণ্ডে অভিযুক্ত দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অজয় কুমার মিশ্রের ছেলে আশীষ মিশ্রকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হাজিরা দিতে বলে। যদিও গতকাল মন্ত্রীপুত্র সেই সমন এড়িয়ে যান এবং হাজিরা দেননি। আজ সকাল ১১টার মধ্যে তাঁর হাজিরা দেওয়ার কথা।

সূত্র: টিভি ৯

আরও পড়ুন ::

Back to top button