অপরাধ

বহু পুরুষে আসক্ত স্ত্রীকে মশা নিধন ওষুধ খাইয়ে হত্যা



সমাজের মূল ভিত্তি হল পরিবার। বিবাহ হল প্রত্যেক ধর্মের পরিবার গঠনের পবিত্র বিধান। সে জন্য বিবাহ বহির্ভূত নারী-পুরুষের সম্পর্ক সকল ধর্মেই নিষিদ্ধ। এই পরকীয়া শুধু একটি সংসারকে ধ্বংস নয়, একটি সমাজ জাতি ও রাষ্ট্রকে কলুষিত করে দিতে পারে।

বিবাহের মত পবিত্র বন্ধনের মাধ্যমে যে সম্পর্কের সূচনা হয় বর্তমানে তা অনায়াসে ভেঙ্গে যাচ্ছে পরকীয়া নামক ব্যাধির কারণে। শুধু সংসার ভাঙা নয়, পরকীয়ার কারণে হত্যাকাণ্ডের ঘটনাও ঘটে থাকে।

এমনই একটি ঘটনা ঘটেছে আগ্রায়। একাধিক পুরুষের সাথে স্ত্রীর প্রেমের সম্পর্ক থাকার অভিযোগে মশা নিরোধক ওষুধ খাইয়ে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে। আর এ ঘটনায় স্বামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

নিহত স্ত্রীর নাম অঞ্জলি এবং ঘাতক স্বামীর নাম সনু (২৬)। তাদের চার এবং ছয় বছর বয়সী দুটি সন্তান রয়েছে।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, একাধিক পুরুষের সাথে স্ত্রীর প্রেমের সম্পর্ক থাকায় তা সহ্য করতে না পেরে স্ত্রীকে মশা নিরোধক ওষুধ খাইয়ে দেন। এরপর তাকে গলাটিপে হত্যা করেন তিনি।

সংবাদমাধ্যম গলফ নিউজ জানায়, নয় বছর আগে সনু ও অঞ্জলি বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। ২৬ বছর বয়সী সনু স্থানীয় বাজারের একজন সবজি বিক্রেতা।



Related Articles

Back to top button