রাজনীতিরাজ্য

‘মেয়র হয়ে কিচ্ছু কাজ করেননি’, রথীনকে ‘অযোগ্য মেয়র’ বলে আক্রমণ প্রসূনের

Prasun Banerjee : ‘মেয়র হয়ে কিচ্ছু কাজ করেননি’, রথীনকে ‘অযোগ্য মেয়র’ বলে আক্রমণ প্রসূনের - West Bengal News 24

রবিবার নাম না করে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের তীব্র সমালোচনা করেছিলেন হাওড়ার সাংসদ (TMC) প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়। বলেছিলেন, ভোটের আগে প্লেনে করে উড়ে গেছিল, ভেবেছিল দিদি হেরে যাবে। এখন আবার দিদির ছবি নিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে। ওকে হাওড়ায় ঢুকতে দেব না।’

রাজীব যখন বিজেপিতে যোগ দিলেন, চার্টার্ড প্লেনে চড়ে দিল্লি গেছিলেন। সেই বিমানে তাঁর সহযাত্রী ছিলেন হাওড়ার প্রাক্তন মেয়র রথীন চক্রবর্তী। সোমবার এই রথীন চক্রবর্তীর বিরুদ্ধেই নাম করে আক্রমণ করলেন প্রসূন। এদিন প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, মেয়র হিসেবে ওঁর নাম আমিই অনুমোদন করেছিলাম। কিন্তু পরে বুঝতে পারি কত বড় ভুল ছিল। রথীন চক্রবর্তীর মেয়র হওয়ার যোগ্যতাই ছিল না। প্রথম দু’বছর কিছু কাজ করেছিলেন। তারপর কিছু করেননি। হাওড়া ও কলকাতার পুরসভা ভোটের দামামা বেজে গেছে।

আরও পড়ুন : জন্মদিনে স্ত্রীকে চাঁদে এক একর জমি উপহার দিলেন ইঞ্জিনিয়ার স্বামী

আগামী ১৯ ডিসেম্বর গঙ্গার দুপাড়ে ভোট হবে। তার আগে হাওড়ার সাংসদ ময়দানে নেমেছেন ভোটের আগে দলছাড়াদের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিতে। শুধু তাই নয়, হাওড়া উপনির্বাচনে তৃণমূল যাতে নতুন ও তরুণ প্রার্থীদের উপর বেশি জোর দেয় সেকথাও খোলাখুলি বলে দিয়েছেন প্রসূন। এখন প্রশ্ন হল নতুনদের যদি সব জায়গায় প্রার্থী করা হয় তাহলে পুরনোরা কী করবেন? এমনিতেই পুরভোটে কারা টিকিট পাবেন আর পাবেন না তা নিয়ে বিদায়ী কাউন্সিলরদের মধ্যে যথেষ্ট উদ্বেগ রয়েছে।

কারণ একুশের বিধানসভা ভোটেই দেখা গিয়েছে কেন্দ্র ধরে প্রার্থী বাদ দিয়েছিল প্রশান্ত কিশোরের সংস্থা। গঙ্গার দু’পাড়েও এমন হতে পারে বলে সিদুঁরে মেঘ দেখছেন অনেকে। ফলে প্রসূনের এই প্রার্থী বাছাইয়ের মানদণ্ডকে ভালভাবে নেননি বিদায়ী কাউন্সিলররা। তাঁদের বক্তব্য সাংসদ যা বলেছেন, তা তাঁর ব্যক্তিগত মত।

প্রসঙ্গত, রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় তৃণমূলে ফিরলেও হোমিও প্যাথি চিকিত্‍সক রথীনবাবু এখনও বিজেপিতেই রয়ে গিয়েছেন। তাঁকে আবার ভোট পরিচালনার বড় দায়িত্বও দিয়েছে রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব। যা নিয়ে গত কয়েকদিনে হাওড়া বিজেপিতে অনেক ঘটনার ঘনঘটা ঘটে গেছে। তবে সেই রথীনও প্রসূনের নিশানা থেকে বাদ গেলেন না।

সুত্র : দ্য ওয়াল

মন্তব্য করুন ..

আরও পড়ুন ::

Back to top button