জাতীয়রাজনীতি

ভোটে জিতলে প্রত্যেক গৃহকর্ত্রীকে মাসে ৫০০০, ‘গৃহলক্ষ্মী’ প্রকল্পের ঘোষণা তৃণমূলের

লক্ষ্মীর ভান্ডারের পরে এ বার গৃহলক্ষ্মী কার্ড। তবে পশ্চিমবঙ্গ নয়, গোয়ায়। গোয়া তৃণমূলের তরফে ঘোষণা করা হয়েছে, আগামী বছর বিধানসভা ভোটে জিতে সে রাজ্য ক্ষমতায় এলে প্রতি পরিবারের বয়োজ্যেষ্ঠ মহিলাকে মাসে ৫,০০০ দেওয়া হবে। প্রসঙ্গত, বাংলার চালু হওয়া লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পে প্রত্যেক পরিবারের গৃহকর্ত্রীকে মাসে ৫০০ টাকা দেওয়া হয়।

গোয়া তৃণমূলের তরফে টুইটারে লেখা হয়েছে, ‘প্রতিটি পবিবারের মাসিক আয় নিশ্চিত করতে গোয়া তৃণমূল গৃহলক্ষ্মী কার্ড চালু করেছে। এই মাসিক আয় সহায়তা প্রকল্পে প্রতিটি পরিবারের এক জন মহিলাকে মাসে সরাসরি ৫,০০০ টাকা (বছরে ৬০ হাজার) দেওয়া হবে।’

তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় টুইটারে গোয়ার মহিলাদের জন্য আর্থিক সহায়তা প্রকল্পের কথা জানিয়ে টুইটারে লিখেছেন, ‘গৃহলক্ষ্মী প্রকল্পের ঘোষণা করতে পেরে আমি খুশি। গোয়ার প্রতিটি পরিবারের মহিলাদের আর্থিক ক্ষমতায়নে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।’

গোয়া তৃণমূল জানিয়েছে, গৃহলক্ষ্মী প্রকল্পের আওতায় গোয়ার সাড়ে তিন লক্ষ পরিবারকে আনা হবে। এর জন্য বছরে খরচ হবে দেড় থেকে দু’হাজার কোটি টাকা। যা দেশের ক্ষুদ্রতম (আয়তনের নিরিখে) রাজ্যের বার্ষিক বাজেটের ৬ থেকে ৮ শতাংশ।

গোয়ার বিজেপি সরকারের মুখ্যমন্ত্রী প্রমোদ সাওয়ান্ত নভেম্বর মাস থেকেই সে রাজ্যে ‘সরকার তুমচ্চা দারি’ প্রকল্প চালু করেছেন। তৃণমূলের অভিযোগ, সরকারি সুযোগ০সুবিধা সরাসরি মানুষের দরজায় পৌঁছে দেওয়ার উদ্দেশ্যে চালু করা প্রকল্প আদতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারের ‘দুয়ারে সরকার’ কর্মসূচির নকল।

সূত্র : আনন্দবাজার

আরও পড়ুন ::

Back to top button