উঃ ২৪ পরগনা

বিয়ের চার মাসের মাথায় স্ত্রীর আত্মহত্যা, নেপথ্যে মোবাইল গেইম আসক্তি!

দিনভর মোবাইলে গেইম খেলায় ব্যস্ত স্ত্রী। বারবার নিষেধ করলেও কথা কানে নেয়নি। স্বামীর সঙ্গে এই নিয়ে মনোমালিন্যের জেরে বিয়ের চার মাসের মধ্যে আত্মহত্যা করলো এক গৃহবধূ। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

ঘটনা ঘটেছে দত্তাবাদে। নিহত ওই বধূর নাম পিউ হাজরা। এ ঘটনায় স্বামী সঞ্জয় হালদারকে গ্রেফতার করেছে বিধাননগর দক্ষিণ থানার পুলিশ।

সঞ্জয়ের পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত অগাস্টে পিউ হাজরার সঙ্গে বিয়ে হয় সঞ্জয়ের। বিয়ের পর থেকেই স্ত্রীর মোবাইল ফোনে গেইম খেলা নিয়ে আপত্তি জানাতেন স্বামী। কিন্তু সেই কথায় কর্ণপাত করতেন না মোবাইল গেমে আসক্ত পিউ। সবকিছু ছেড়ে গেইম নিয়ে মেতে থাকতেন তিনি। এই নিয়ে দুজনের মধ্যে দাম্পত্য কলহ লেগেই থাকত।

আরও পড়ুন : স্বামী চাহিদা পুরন না করায় রাজমিস্ত্রির হাত ধরে পালিয়েছিলেন ‘নিঃসঙ্গ’ ২ বউ

গত মঙ্গলবার দুপুরেও এই নিয়ে দুজনের বিবাদ বাঁধে। এরপর বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান সঞ্জয়। ওদিকে গোসল-পূজা সেরে নিজের ঘরে ঢুকে যান পিউ। বিকেলে সঞ্জয় বাড়ি ফিরে দেখেন গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছেন স্ত্রী। পরবর্তীতে স্ত্রীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এরপর বিধাননগর দক্ষিণ থানায় সঞ্জয়ের বিরুদ্ধে বধূ নির্যাতন ও আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগ দায়ের করে মৃতের পরিবার। এরই ধারাবাহিকতায় অভিযুক্ত যুবককে গ্রেফতার করে পুলিশ।

আরও পড়ুন ::

Back to top button