ঝাড়গ্রাম

‘সাথে আছি’কে পাশে নিয়ে অগ্রদূত ক্লাবের রক্তদান শিবির

স্বপ্নীল মজুমদার

‘সাথে আছি’কে পাশে নিয়ে অগ্রদূত ক্লাবের রক্তদান শিবির - West Bengal News 24

ঝাড়গ্রাম: গ্রীষ্মের শুরুতেই রক্তের সংকট শুরু হয়। যদিও এখনো ঝাড়গ্রামে সেভাবে সংকট শুরু হয়নি। তবে আগেভাগে উদ্যোগী হল ঝাড়গ্রাম শহরের সুপ্রাচীন অগ্রদূত ক্লাবের কর্তৃপক্ষ।

রবিবার ঝাড়গ্রাম শহরের ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের বহুতল আবাসন চত্বর লাগোয়া ক্লাবঘরে এক রক্তদান শিবিরের আয়োজন করা হয়। ১৯৬৯ সালে এই ক্লাবটি প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রায় পাঁচ দশকেরও বেশি সময় ধরে এই ক্লাব নানা ধরনের সমাজসেবামূলক কাজকর্ম এবং বার্ষিক কালী পুজোর আয়োজন করে থাকে।

আরও পড়ুন :: স্ত্রীকে খুন করাতে চুক্তি, টাকার বদলে ধর্ষণের ‘সুযোগ’ দেবে স্বামী

একসময় অগ্রদূত ক্লাবের কালীপুজো ছিল ঝাড়গ্রাম জেলার সেরা পুজো। এখন অবশ্য কলেবরে অনেকটাই কমে গিয়েছে কালীপুজো। তবে আন্তরিকতার পুজো হয় এখানে। এবার রক্তদান শিবিরের মধ্যেও অভিনবত্ব আনলেন ক্লাব কর্তৃপক্ষ। মহিলা পরিচালিত ‘সাথে আছি’ সংগঠনের সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধে এদিন রক্তদান শিবিরের আয়োজন করা হয়।

‘সাথে আছি’কে পাশে নিয়ে অগ্রদূত ক্লাবের রক্তদান শিবির - West Bengal News 24

ঝাড়গ্রাম ব্লাড ব্যাংক কর্তৃপক্ষের সহযোগিতায় ৩৮ জন দাতার রক্ত সংগ্রহ করা হয়। শিবিরে উৎসাহ দিতে হাজির ছিলেন ঝাড়গ্রাম পুরসভার বিদায়ী চেয়ারপার্সন কবিতা ঘোষ, প্রাক্তন পুরপ্রধান দুর্গেশ মল্লদেব, ঝাড়গ্রাম জেলা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের চিকিৎসক তাপস পান্ডা প্রমুখ। ক্লাবের সম্পাদক তরুণ পান্ডা বলেন, গ্রীষ্মের শুরুতে রক্তের সংকট শুরু হয়। তাই আগেভাগে আমরা সেই সংকট যাতে না হয় তাই শিবির করে রক্ত সংগ্রহের জন্য উদ্যোগী হলাম।

এদিন সংগৃহীত রক্ত ঝাড়গ্রাম ব্লাড ব্যাংক কর্তৃপক্ষের হাতে তুলে দেওয়া হয়। পুরো কর্মসূচির সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন ঝাড়গ্রাম ডিস্ট্রিক্ট ভলান্টারি ব্লাড ডোনার্স ফোরামের সম্পাদক চন্দন শতপথী।

মন্তব্য করুন ..

আরও পড়ুন ::

Back to top button