আন্তর্জাতিক

যে কারণে বেতন নেন না জাম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট

জাম্বিয়ার নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট দেশটির বিরোধীদলীয় নেতা হাকাইন্ডে হিচিলেমা। ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকেই বেতন নেন না তিনি। তার আট মাস ধরে বেতন না নেওয়ার বিষয়টি জানতেন না খোদ দেশটির নাগরিকরাও। তবে সম্প্রতি বিষয়টি নিয়ে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে বেশ আলোচনা হচ্ছে।

রাষ্ট্রপতির বেতন ও ভাতার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় জানায়, জনসাধারণের সেবা করার স্বার্থে বেতন বাতিল করেছেন হিচিলেমা। এক প্রতিক্রিয়ায় প্রেসিডেন্ট হিচিলেমা বলেন, আমার জন্য অনুপ্রেরণামূলক নয় যে সরকারি অফিস থেকে বেতন নেওয়া।

আরও পড়ুন :: রাশিয়া ‘যুদ্ধাপরাধ’ ঢাকার চেষ্টা করছে: জেলেনস্কি

দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর লিভিংস্টনে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, বেতনের বিষয়টি কোনো ঘটনাই না। কারণ বেতন আমার জন্য অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করে না। তার মানে এই নয় যে সরকার আমাকে বেতন দিতে চায় না। হিচিলেমা বলেন, বেতনের দিকে আমার কোনো মনোযোগ নেই। আমার প্রধান লক্ষ্য হলো দেশের জনগণের জীবনযাত্রার মানোন্নয়ন।

৫৯ বছর বয়সী এই প্রেসিডেন্ট একজন অর্থনীতিবিদ ও ব্যবসায়ী। ১৫ বছর বিরোধীদলে থাকার পর তিনি প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন। ক্ষমতাসীন এডগার লুঙ্গুকে ১০ লাখের বেশি ভোটে পরাজিত করেন তিনি। ২০১৫ সাল থেকে প্রেসিডেন্ট হিসেবে ক্ষমতায় ছিলেন ৬৪ বছর বয়সী লুঙ্গু। গত বছরের আগস্টে দেশটির প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন হাকাইন্ডে হিচিলেমা।

আরও পড়ুন ::

Back to top button