আন্তর্জাতিক

এবার পুতিনের দুই মেয়ের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা

ইউক্রেনে সামরিক আগ্রাসন শুরুর পর থেকেই রাশিয়ার ওপর পশ্চিমা দেশগুলো একের পর এক নিষেধাজ্ঞা দিয়ে যাচ্ছে। এবার রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের দুই মেয়ের ওপর আর্থিক নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা দিল যুক্তরাষ্ট্র।

পুতিনের দুই মেয়ে ক্যাটেরিনা ও মারিয়ার যুক্তরাষ্ট্রে যে সম্পদ রয়েছে, তা ফ্রিজ করা হচ্ছে। এ ছাড়া রুশ প্রধানমন্ত্রী মিখাইল মিশুসতিন, তার স্ত্রী-সন্তান, পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ, সাবেক প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রী দিমিত্রি মেদভেদেভের ওপরও নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

এক বিবৃতিতে হোয়াইট হাউস জানায়, রাশিয়ার মানুষকে বঞ্চিত করে এরা নিজেরা ধনী হযেছেন। তাদের মধ্যে কয়েকজন ইউক্রেনে রাশিয়ার হামলার জন্য দায়ী বা তা সমর্থন করছেন। তাই এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। রাশিয়া ইউক্রেনে যে যুদ্ধাপরাধ করেছে, এ জন্যই নতুন নিষেধাজ্ঞা।

আরও পড়ুন :: পুতিনের মেয়ে কারা? তাঁর পরিবার সম্পর্কে যা জানা যায়

নিষেধাজ্ঞার কারণ সম্পর্কে মার্কিন প্রশাসনের এক কর্মকর্তা বলেন, ‘আমাদের এটা বিশ্বাস করার যথেষ্ট কারণ আছে যে, পুতিন ও তার সঙ্গীরা পরিবারের মানুষদের নামে সম্পদ রেখেছেন এবং সেই সম্পদ মার্কিন অর্থ ব্যবস্থার মধ্যে আছে। এ ছাড়া তা বিশ্বের অন্য অনেক প্রান্তে আছে। পুতিনের সম্পদ পরিবারের মানুষদের কাছে গোপনে রাখা হয়েছে। তাই যুক্তরাষ্ট্র তাদের টার্গেট করছে।’

প্রসঙ্গত, ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসন শুরু হয় গত ২৪ ফেব্রুয়ারি। যুদ্ধে ইউক্রেনের বহু মানুষের মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়। পুরো ইউক্রেন কার্যত ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়। বাস্তুচ্যুত হয় অন্তত কোটি মানুষ। লাখ লাখ মানুষ ইউক্রেন ছেড়ে পাশের দেশগুলোতে শরণার্থী হয়েছে।

সূত্র: ডয়চে ভেলে

আরও পড়ুন ::

Back to top button