সম্পর্ক

যেসব নারীদের পরকীয়ায় জড়ানোর প্রবণতা সবচেয়ে বেশি

যেসব নারীদের পরকীয়ায় জড়ানোর প্রবণতা সবচেয়ে বেশি

প্রেম সবার জীবনেই আসে। কে, কখন কার প্রেমে পড়বেন, তা বোঝা মুশকিল। অনেকেই আবার সম্পর্কে থেকেও অন্যের প্রতি আকৃষ্ট হন। পরকীয়ায় জড়ান।

জানেন কি, প্রকাশ্যে পরকীয়া নিয়ে আলোচনা করাও অনেক জায়গায় সংস্কৃতি বহির্ভূত। তারপরও, চিরকালই নিষিদ্ধ প্রেমের হাতছানিতে সাড়া দিয়েছেন বহু পুরুষ এবং নারী। অনেকে মনে করেন, বিবাহিত সঙ্গীর সঙ্গে মানসিক দূরত্ব থেকেই পরকীয়া সম্পর্কের দিকে যান মানুষ। মানসিক দূরত্বের পাশাপাশি, শারীরিক অপূর্ণতা থেকেও পরকীয়া সম্পর্কের দিকে ঝোঁকেন মানুষ।

সম্প্রতি একটি অনলাইন ডেটিং সংস্থার করা সমীক্ষা জানিয়েছে, যেসব নারীরা পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন, তাদের মধ্যে প্রায় ৫২ শতাংশ নিয়মিত যোগ অভ্যাস করে থাকেন।

আরও পড়ুন :: এমন স্বভাবের পুরুষকেই ভালোবাসায় ভরিয়ে দেন মহিলারা! আপনি কি তেমনই কেউ?

দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন যেসব নারীরা নিয়মিত সকালে দৌঁড়ান তারা। তৃতীয় স্থানে রয়েছেন সেই নারীরা, যারা প্রতিদিন টেনিস খেলেন। সাঁতার কাটেন এবং নিয়মিত সাইকেল চালান এমন নারীদের মধ্যেও পরকীয়ার প্রবণতা বেশির দিকে।

প্রশ্ন উঠতেই পারে যে, নানা ধরনের শরীরচর্চার অভ্যাস থাকা নারীদের মধ্যেই কেন পরকীয়ার প্রবণতা বেশি? গবেষণা বলছে, রোজ শরীরচর্চার অভ্যাস শুধু শারীরিকভাবে নয় মানসিকভাবেও উৎফুল্ল রাখে। রক্ত সঞ্চালন উন্নত করে। ভেতর থেকে শক্তি জোগায়।

এই সমীক্ষায় অংশ নেয়া নারীদের প্রশ্ন করা হলে অধিকাংশেই এক বাক্যে উত্তর দিয়েছেন, যৌনজীবন আরো আনন্দমুখর করে তুলতেই সঙ্গী থাকা সত্ত্বেও জীবনে প্রবেশ ঘটে অন্য ব্যক্তির। সঙ্গীর সঙ্গে দীর্ঘদিন শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হওয়ার পর একঘেয়েমি চলে আসে। নতুন স্পর্শ পেতে ইচ্ছা করে। নিয়মিত শরীরচর্চার অভ্যাস সেই ইচ্ছাকে আরো বাড়িয়ে তোলে।

আরও পড়ুন ::

Back to top button