বলিউড

মহেশ ভাটের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ আনলেন সুস্মিতা সেন

বলিউডের সাবেক ‘মিস ইউনিভার্স’ সুস্মিতা সেন। ১৯৯৪ সালে এই সুন্দরী প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হওয়ার দুই বছর পর চলচ্চিত্রে নাম লেখান তিনি। ১৯৯৬ সালে বর্তমানের জনপ্রিয় অভিনেত্রী আলিয়া ভাটের বাবা পরিচালক মহেশ ভাটের ‘দস্তক’ সিনেমাটি দিয়ে বলিউডে অভিষেক হয়েছিল সুস্মিতার। কেমন ছিল সেই অভিজ্ঞতা? ভাবলে আজও শিউরে ওঠেন অভিনেত্রী।

এক সাক্ষাৎকারে প্রথম সিনেমার পরিচালক মহেশ ভাটের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ করেন সুস্মিতা সেন। তিনি জানান, এক ঘর লোকের সামনে তাকে অপমান করেছিলেন মহেশ ভাট। বলেছিলেন, ‘অভিনয় করতে পারো না যখন, এসেছো কেন?’ এটা শুনে ছিটকে বেরিয়ে যাচ্ছিলেন সুস্মিতা। তখনই মহেশ ভাট এসে তার হাত চেপে ধরেন।

হাত ছাড়িয়ে নিয়ে কড়া ভাষায় সুস্মিতা সেন সেদিন বলেন, ‘আমার সঙ্গে এই ভাবে কেউ কথা বলে না।’ মহেশ ভাট আবারও সুস্মিতার হাত ধরে বলেন, ‘ক্যামেরার সামনে এসো, কাজ করো।’ সুস্মিতা তাতে আরও রেগে গয়না, ঘড়ি সব ছুড়ে ফেলে বেরিয়ে যেতে উদ্যোগী হন। তখন মহেশ ভাট তাকে টেনে এনে বলেন, ‘এই রাগটা ক্যামেরার সামনে দেখাও। এটাই চাইছি।’

সেই সিনেমা দিয়েই আত্মপ্রকাশ সুস্মিতা সেনের। ‘দস্তক’-এ একজন ‘বিউটি কুইন’-এর ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন নায়িকা। তবে সুস্মিতার কথায়, ‘মহেশ আমার উচ্চাকাঙ্ক্ষা ভেঙে চুরমার করে দিয়েছিলেন সবার সামনে। খুব অপমানিত বোধ করেছিলাম। সেই যন্ত্রণা আজও ভুলতে পারি না।

আরও পড়ুন ::

Back to top button