নদীয়া

ছেলের আবদারে কেনা লটারিতে কোটিপতি

ছেলের আবদার রক্ষা করতে গিয়ে লটারি কিনেছিলেন নদীয়া জেলার জগন্নাথ মণ্ডল। মাত্র ৩০ টাকার লটারিই বদলে দিলো তাদের ভাগ্য।

জানা গেছে, নদীয়ার রানাঘাট থানার পায়রাডাঙ্গা গ্রামের উকিলনাড়ার বাসিন্দা জগন্নাথ। গ্রাম পঞ্চায়েতের অস্থায়ী ভিলেজ রিসোর্স পার্সনের চাকরি করে মাসে পেতেন মাত্র পাঁচ হাজার টাকা।

বুধবার দুপুরে গ্রামের একটি চায়ের দোকানে বসে চা খাচ্ছিলেন তিনি। বেশ কয়েকদিন ধরে তার এক ছেলে লটারি কেনার আবদার করে আসছিল। পকেটে তেমন টাকা না থাকলেও ছেলের আবদারের কথা মাথায় রেখে শেষমেশ লটারি কিনে ফেলেন তিনি।

বুধবার বিকেলে লটারির ফলাফল বেরনোর পর জগন্নাথ জানতে পারেন তিনিই প্রথম পুরস্কার পেয়েছেন। তাও আবার দু-এক লাখ নয়, এক কোটি টাকা।

এই আনন্দের খবরে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন তারা। কিছুক্ষণের মধ্যেই জগন্নাথ সিদ্ধান্ত নেন, পুরস্কারের অর্থ হাতে পেয়ে প্রথমেই বাড়ির পাশে সর্বজনীন কালী মন্দিরটি সংস্কার করে বড় করবেন। সেইসঙ্গে আরও কিছু অর্থ সামাজিক কাজে ব্যয় করবেন, দুই ছেলেকে উচ্চশিক্ষিত করে গড়ে তুলবেন।

আরও পড়ুন ::

Back to top button