হলিউড

অ্যাঞ্জেলিনার গায়ে মদ ছুড়ে মেরেছিলেন ব্র্যাড!

দাম্পত্য কলহে জনি ডেপ আর অ্যাম্বার হার্ডকে হার মানিয়ে দিয়েছেন হলিউডের আরেক দম্পতি- অ্যাঞ্জেলিনা জোলি আর ব্র্যাড পিট। তাদের বিবাহবিচ্ছেদের পরও মামলা-মোকদ্দমা চলছে তো চলছেই। ছয় সন্তানের অধিকার কে পাবেন, তা নিয়ে লড়ে যাচ্ছেন দুই তারকার আইনজীবী।

সাবেক স্বামী ব্র্যাডের বিরুদ্ধে আগেই মানহানির মামলা দায়ের করেছিলেন জোলি। সেই মামলার পরও কেন পুলিশের তরফে পদক্ষেপ করা হয়নি, সে নিয়ে আবারো মাঠে নামলেন ‘আ মাইটি হার্ট’-এর নায়িকা।

প্রাথমিক এফবিআই রিপোর্টে, জোলি কর্মকর্তাদের বলেছিলেন সেই অধ্যায়। ২০১৬ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর পিট, জোলি ও তাঁদের ছয় সন্তান ফ্রান্সের নিস থেকে প্রাইভেট জেটে চড়ে যুক্তরাষ্ট্রে ফিরছিলেন। জোলির অভিযোগ, সেই বিমানের মধ্যেই তাকে মদ ছুড়ে মারেন ব্র্যাড। সন্তানদের সামনেই তাকে অপমান করেন।

যদিও পাল্টা অভিযোগ এনে ব্র্যাড বলেন, বাচ্চাদের অবহেলা করেছেন তার সাবেক স্ত্রী। তাই আইনি ভাবে সন্তানদের দায়িত্ব তিনিই নিতে চান।

এর পর পরই বিচ্ছেদ হয়ে যায় দুই তারকার। তার পর সূত্রের খবর, জোলি তার সাবেক স্বামীর সাথে চলমান লড়াইয়ে ‘নতুন কিছু খোঁজার মরিয়া চেষ্টা করছেন’।

২০১৬ সালের বিমান ঘটনার পরে কেন তার সাবেকের বিরুদ্ধে কোনো ফৌজদারি অভিযোগ আনা হয়নি, তা জানার জন্য এই অভিনেত্রী এপ্রিলে বেনামে (জেন ডো নামে) পিটের বিষয়ে তদন্ত সম্পর্কিত নথি খতিয়ে দেখার অনুরোধ করেছিলেন। বিচার পদ্ধতির খামতির বিরুদ্ধে ফের মামলা দায়ের করেছিলেন অভিনেত্রী। যদিও আদালত সূত্রে খবর, নতুন কিছু এখনো পাওয়া যায়নি।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

আরও পড়ুন ::

Back to top button