আন্তর্জাতিক

পরকীয়া করলে সারাজীবনের খরচ বইতে হবে, হবু বরের সঙ্গে তরুণীর চুক্তি

প্রতারকরা কখনই সফল হন না। হবু স্বামীকে সেই বার্তা দিতে এবার আমেরিকার আইডাহোর চায়লিন মার্টিনেজ নামের এক তরুণী পাগলাটে কাণ্ডই করে বসলেন। হবু স্বামী যাতে ভবিষ্যতে বিয়ে-বহির্ভূত কোনও সম্পর্কে জড়ানোর আগে অন্তত একবার চিন্তা-ভাবনা করেন, সেটি নিশ্চিতে একটি চুক্তি করেছেন তিনি। অনৈতিক সম্পর্কে জড়ালে সারাজীবনের মতো চায়লিনের সব খরচ চালাতে হবে স্বামীকে, এমন শর্তে হবু বরকে রীতিমতো আইনি চুক্তিতে স্বাক্ষর করিয়েছেন তিনি।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে টিকটকে চায়লিন একটি ভিডিও ছেড়েছেন, যেখানে হবু স্বামীর সঙ্গে ওই চুক্তির বিস্তারিত বলেছেন তিনি। তার এই ভিডিও রীতিমতো ভাইরাল হয়ে ছড়িয়েছে। ইতোমধ্যে তা দেখে ফেলেছেন ৭০ লাখের বেশি মানুষ আর লাইক দিয়েছেন ১৯ লাখ।

চুক্তি অনুযায়ী, অন্য কোনও নারীর সাথে যদি সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন, তাহলে চায়লিনের সারাজীবনের ভরণপোষণের সব ব্যয় চালাবেন স্বামী। আর এই শর্তে সায় রয়েছে হবুু স্বামীরও, চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছেন তিনি।

টিকটকে সালামি কুইন নামে পরিচিত চায়লিন মার্টিনেজ ভিডিওতে বলেছেন, আমার হবু বর মাত্রই একটি আইনি চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছেন। আমরা একটি চুক্তিতে পৌঁছেছি যে, প্রতারণা করলে আমার ব্যয়বহন করতে হবে তাকে।

আইডাহোর বোইস এলাকার বাসিন্দা এই তরুণী ভিডিওতে বলেন, যদি হবু বর আমার সাথে প্রতারণা করেন, তাহলে তাকে অনুতপ্ত হতে হবে। ভিডিওর শেষে চায়লিন বলেন, আমি অনেক স্মার্ট নাকি পাগলাটে, তা জানি না।

তবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের মনোবিদরা চায়লিনের এমন কাণ্ডে ইতিবাচক মন্তব্য করেছেন। মার্টিনেজের বিশ্বাসঘাতকতা চুক্তির প্রশংসা করে একজন মনোবিদ কমেন্টে লিখেছেন, ‌‘আপনি স্মার্ট এবং শক্তিশালী।’ অন্য একজন লিখেছেন, এটি এখন পর্যন্ত শোনা সবচেয়ে স্মার্ট একটি বিষয়।

অন্যান্য অনেকেই অবশ্যই তাদের এই চুক্তিপত্র দেখতে চেয়ে কমেন্ট করেছেন। একজন লিখেছেন, আপনি কি আমাকে এই চুক্তির পিডিএফের লিঙ্ক পাঠাতে পারবেন?

পরে আরেক পোস্টে চায়লিন ব্যাখ্যা করে বলেছেন, তার হবু বর চুক্তিপত্রটি লিখেছেন। ব্যক্তিগত কিছু বিষয় থাকায় সেটি শেয়ার করবেন না তিনি।

সূত্র: নিউইয়র্ক পোস্ট।

আরও পড়ুন ::

Back to top button