আন্তর্জাতিক

যুক্তরাজ্যের নতুন প্রধানমন্ত্রী লিজ ট্রাস

ব্রিটেনের নতুন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন ক্ষমতাসীন দল কনজারভেটিভ পার্টির নেতা লিজ ট্রাস। সোমবার (৫ সেপ্টেম্বর) লন্ডনে দলীয় সদস্যদের ভোটে নির্বাচিত হন তিনি। এর ফলে মার্গারেট থ্যাচার ও থেরেসা মের পর তৃতীয় নারী প্রধানমন্ত্রী হতে যাচ্ছে ইংলিশরা।

কনজারভেটিভ পার্টির ভোটাভুটি শেষে সোমবার লন্ডনের স্থানীয় সময় বেলা সাড়ে ১২টায় বিজয়ী হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে লিজ ট্রাসের নাম ঘোষণা করা হয়।

কনজারভেটিভ পার্টির প্রভাবশালী এক হাজার ৯২২ সদস্যের কমিটির সভাপতি স্যার গ্রাহাম ব্রেডি ওই নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করেন। ফল অনুযায়ী, ৮১ হাজার ৩২৬টি ভোট পেয়েছেন বর্তমান পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিজ ট্রাস। অন্যদিকে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ও সাবেক অর্থমন্ত্রী ঋষি সানাক পেয়েছেন ৬০ হাজার ৩৯৯টি ভোট।

ব্রিটেনের ১৫তম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মঙ্গলবার (৬ সেপ্টেম্বর) রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথের সঙ্গে দেখা করে তার অনুমতি নিয়ে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ‘টেন ডাউনিং স্ট্রিটের’ দফতরে বসবেন লিজ।

এ দিন বিজয়ী হওয়ার পরপর তাৎক্ষণিক এক প্রতিক্রিয়ায় লিজ ট্রাস বলেন, দেশের জ্বালানি খাতকে পুনরুজ্জীবিত করার পাশাপাশি স্বাস্থ্য সেবার উন্নয়ন এবং জনগণের ওপর আরোপিত কর হ্রাসের জন্য কাজ করবেন তিনি। পাশাপাশি ২০২৪ সালের সাধারণ নির্বাচনে কনজারভেটিভ পার্টিকে ক্ষমতায় আনার জন্য লড়বেন।

৪৭ বছর বয়সী লিজ ট্রাসের পুরো নাম মেরি এলিজাবেথ ট্রাস। তিনি শুধু বরিস জনসনের মন্ত্রিসভায় নয়, দায়িত্ব পালন করেছেন থেরেসা মে ও ডেভিড ক্যামেরনের সরকারেও। অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ডিগ্রী অর্জন করে ১৯৯৬ সালে যোগ দেন কনজারভেটিভ পার্টিতে। ২০১০ সালের নির্বাচনে সাউথ ওয়েস্ট নর্থ ফোক থেকে নির্বাচিত হয়ে ব্রিটিশ পার্লামেন্টের সদস্য হন তিনি। তার স্বামী হিউগ ও’লিয়ারির একজন অ্যাকাউন্ট্যান্ট। তাদের সংসারে দুটি কন্যা সন্তান রয়েছে।

২০১৯ সালে নির্বাচনে কনজারভেটিভ পার্টি একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জনের পর মাত্র আড়াই বছরের মাথায় প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ক্ষমতা ছাড়ার ঘোষণা দেন। করোনাকালে নিয়ম বহির্ভূতভাবে পার্টির আয়োজন ছাড়াও নানা কেলেঙ্কারিতে সমালোচিত হয়ে আসছিলেন তিনি। ব্রিটেনবাসীকে সমৃদ্ধ অর্থনীতি উপহার দেওয়ার প্রতিশ্রুতিতে ক্ষমতায় আসা জনসন আগামীকাল মঙ্গলবার রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের কাছে নিজের পদত্যাগপত্র জমা দেবেন বলে জানা গেছে।

ওইদিন ব্রিটেনের বালমোরালে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেওয়ার কথা রয়েছে বরিসের। এর পরপরই আনুষ্ঠানিকভাবে রানীর কাছ থেকে নতুন প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেবেন কনজারভেটিভ পার্টির নেতা লিজ ট্রাস।

আরও পড়ুন ::

Back to top button