কলকাতা

দমদম, বেলঘরিয়া সহ ৮১ টি কনটেনমেন্ট জোন, দেখে নিন কি কি?

 

কলকাতা: বাংলায় কনটেনমেন্টে জোনের সঙ্গে একধাক্কায় অনেকটাই বেড়ে গিয়েছে। সোমবারই সামনে এসেছে সেই ছবি। ৪৪৪ থেকে কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৫১৬। ইতিমধ্যেই সেই তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে।

কলকাতারর পাশাপাশি নজরে রয়েছে উত্তর ২৪ পরগণাও। সেখানে কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা ৮১। যা রীতিমত উদ্বেগজনক। বেলঘরিয়ায় সংক্রমণের খবর আগেই প্রকাশ্যে এসেছে। এছাড়া, ব্যারাকপুর, পানিহাটি সহ একাধিক জায়গায় ছড়িয়েছে সংক্রমণ।

তালিকায় রয়েছে দক্ষিণ দমদমের একাধিক জায়গা। রয়েছে লেক টাউন, রাষ্ট্রগুরু অ্যাভিনিউর নাম। এছাড়া বরানগরে গোপাল লাল ঠাকুর রোড, নন্দ কুমার রোড সহ পাঁচটি জায়গা রয়েছে ওই তালিকায়।

কামারহাটির রানি পার্ক, শরত্‍ পল্লী সহ আটটি জায়গাকে কনটেনমেন্ট জোন হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। দমদমের চারটি জায়গায় রয়েছে সংক্রমণের ভয়। নর্থ দমদমে প্রকোপ কিছুটা বেশি। কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা আট।

এছাড়া ভাটপাড়া, পানিহাটি. নর্ধ ব্যারাকপুর, বারাসত রয়েছে ওই তালিকায়। রয়েছে মধ্যমগ্রাম, টীটাগড়, নৈহাটি, বসিরহাট, গাইঘাটা, বাদুড়িয়া, ব্যারাকপুর। বিধাননগরের ১৫ টি জায়গায় সংক্রমণের আশঙ্কা রয়েছে।

এদিকে, সোমবাররে হিসেব অনুযায়ী, মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১২৫৯ জন। এদের মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২১৮ জন। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে অ্যাক্টিভ করোনা কেস ৯০৮টি। মুখ্যসচিব, রিপোর্টিং পদ্ধতিতে জটিলতার জেরে প্রথমে সমস্যা হচ্ছিল। সরকারি হাসপাতাল থেকে পুরো তথ্য এলেও বেসরকারি হাসপাতালগুলি থেকে তথ্য পেতে অসুবিধা হচ্ছিল। এখন সেই সমস্যা কাটিয়ে ওঠা গিয়েছে।

কেন্দ্রের দেওয়া তথ্যের সঙ্গে রাজ্যের দেওয়া করোনা আক্রান্তের তথ্যে ফারাক ছিল। এদিন এই বিষয়টিরও উল্লেখ করেন মুখ্যসচিব। তিনি বলেন, ‘রাজ্য সরকার এতদিন শুধুমাত্র অ্যাক্টিভ কেসই জানাচ্ছিল। বোঝার সমস্যার জেরেই মোট আক্রান্তের সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তি তৈরি হয়।’

সুত্র : কলকাতা24×7

আরও পড়ুন ::

Back to top button