ম্যাক্সওয়েল-মার্শের ব্যাটে বিপদ সামলে লড়াকু পুঁজি অস্ট্রেলিয়ার

Advertisement

ওল্ড ট্রাফোডে সিরিজের প্রথম ওয়ানডে ম্যাচে টস জিতে অস্ট্রেলিয়াকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় ইংল্যান্ড। ইংলিশ দলপতি ইয়ন মরগ্যানের মুখে চওড়া হাসিই ফুটেছিল। দলের বোলারদের দারুণ বোলিংয়ে যে সফরকারিদের অল্প রানে গুটিয়ে দেয়ার ব্যবস্থা হয়ে গিয়েছিল!

১২৩ রানের মধ্যে শীর্ষ ৫ ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে ফেলা অস্ট্রেলিয়া দুইশ পর্যন্ত যেতে পারে কি না, তা নিয়েই ছিল সংশয়। তবে সব শঙ্কা-সংশয় উড়িয়ে দিয়েছেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল আর মিচেল মার্শ। ষষ্ঠ উইকেটে ১২৬ রানের বড় জুটিতে দলকে বড় বিপদ থেকে বাঁচিয়েছেন এই যুগল। শেষতক ৯ উইকেটে ২৯৪ রানের লড়াকু পুঁজিই পেয়েছে অসিরা।


ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই ডেভিড ওয়ার্নারকে হারিয়ে বসে অস্ট্রেলিয়া। জোফরা আর্চারের দুর্দান্ত এক ডেলিভারিতে মাত্র ৬ রান করে বোল্ড হন তিনি। অ্যারন ফিঞ্চ আর মার্কাস স্টয়নিস হাল ধরার চেষ্টা করেছিনে। ফিঞ্চকে ১৬ আর স্টয়নিসকে ৪৩ রানে সাজঘরের পথ দেখান মার্ক উড। দুজনই এই পেসারের বলে উইকেটরক্ষককে ক্যাচ দেন।

আরও পড়ুন : আইপিএলে হবে ২০ হাজারেরও বেশি করোনা পরীক্ষা

দেখেশুনে খেলছিলেন মার্নাস লাবুশানে। ২১ রান করা এই ব্যাটসম্যানকে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেন আদিল রশিদ। ১০৩ রানে ৪ উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া। রশিদের দ্বিতীয় শিকার হয়ে অ্যালেক্স কারেও (১০) ফিরে গেলে ভীষণ বিপদে পড়ে অসিরা।

সেখান থেকে ম্যাক্সওয়েল আর মার্শের প্রতিরোধ। দলকে ২৪৯ রানের লড়াকু সংগ্রহ পর্যন্ত নিয়ে গিয়ে আর্চারের বলে বোল্ড হন ম্যাক্সওয়েল। ৫৯ বলে ৪টি করে চার-ছক্কায় এই অলরাউন্ডার করেন ৭১ রান।

রান বাড়ানোর চাপ বাড়ছিল। ধীরে ইনিংস গুছিয়ে আনা মিচেল মার্শও বাধ্য হয়ে চালিয়ে খেলার চেষ্টা করছিলেন। মার্ক উডের দারুণ এক ডেলিভারি মিস করে এলবিডব্লিউ হন তিনি, ১০০ বলে ৬ বাউন্ডারিতে করেন ৭৩ রান।

এরপর লোয়ার অর্ডারের মিচেল স্টার্কের ১২ বলে হার না মানা ১৯ রানের ছোট এক ইনিংসে প্রায় তিনশোর কাছাকাছি পুঁজি পেয়ে গেছে অস্ট্রেলিয়া।

 

 


Recommended For You