কলকাতা

পুজোয় ভাসবে শহর থেকে শহরতলি,বলছে হাওয়া দপ্তর

পুজোয় ভাসবে শহর থেকে শহরতলি,বলছে হাওয়া দপ্তর

পুজোয় যে কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের প্রায় সব জেলাতেই বৃষ্টি হবে সেই পূর্বাভাস আগেই দিয়েছিল আলিপুর আবহাওয়া দফতর। সেই পূর্বাভাস অক্ষরে অক্ষরে মিলিয়ে তৃতীয়ার দিনই তুমুল বৃষ্টি শুরু হয়েছে কলকাতায়। শহরতলির অধিকাংশ জেলাতেই আকাশ রয়েছে মেঘলা।

বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলেও জানিয়েছে আলিপুর। হাওয়া অফিস জানিয়েছে, আজ মধ্য বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ তৈরি হবে। এর প্রভাবেই পুজোয় চলবে বৃষ্টি। মধ্য বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপ শক্তি বাড়িয়ে ওড়িশা ও অন্ধ্র উপকূলের মাঝ বরাবর স্থলভাগে প্রবেশ করবে।

এর প্রভাবে দুর্গা পুজোর কয়েকদিন বৃষ্টি হবে কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের প্রায় সব জেলায়। আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, মূলত ২১ থেকে ২৬ অক্টোবর অর্থাত্‍ পঞ্চমী থেকে দশমী পর্যন্ত রোজই দক্ষিণবঙ্গের প্রায় সব জেলাতেই বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। তবে ২২ থেকে ২৪ অক্টোবর অর্থাত্‍ ষষ্ঠী থেকে অষ্টমী এই তিনদিন কলকাতা এবং অন্যান্য জেলাতে বৃষ্টির তীব্রতা ও স্থায়িত্ব বাড়তে পারে।

বঙ্গোপসাগরে আজ যে নিম্নচাপ তৈরি হবে সে কথা আগেই জানিয়েছিল আলিপুর। সেই সঙ্গে পূর্বাভাসে বলা হয়েছিল নিম্নচাপ সৃষ্টির ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তা আরও বেশি শক্তিশালী হবে। তারপর অগ্রসর হবে ওড়িশা এবং অন্ধ্র উপকূলে। এই নিম্নচাপের প্রভাবে এ রাজ্যে দক্ষিণ পশ্চিমী ঝঞ্ঝার সাহায্যে প্রচুর পরিমাণ জলীয় বাষ্প ঢুকবে।

আর তার জেরেই বজ্রবিদ্যুত্‍-সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে পুজোর কয়েক দিন। হাওয়া অফিসের পূর্বাভাস বাংলা থেকে বর্ষা বিদায় নিতে এখনও বেশ কিছুটা দেরি রয়েছে। যে হারে বঙ্গোপসাগরে একের পর এক নিম্নচাপ তৈরি হচ্ছে তাতে এটা স্পষ্ট যে বিদায়বেলায় যথেষ্ট সক্রিয় মৌসুমী বায়ু। তাই নিম্নচাপের দোসর ঘূর্ণাবর্ত।

দুইয়ের প্রভাবেই বারবার বৃষ্টি হচ্ছে রাজ্যে। তবে এই নিম্নচাপের প্রভাবে কেবল দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টি হবে না। ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণের পূর্বাভাস রয়েছে ওড়িশা, অন্ধ্র, তামিলনাড়ু, কর্নাটক এই চার উপকূলেও। আজ ও আগামীকাল অতি ভারী বৃষ্টির সতর্কতা রয়েছে তেলেঙ্গানা-সহ হায়দরাবাদের একাধিক অংশে। পাশাপাশি ভারী বৃষ্টি হবে তামিলনাড়ু উপকূলে।

আরও পড়ুন: মুখ্যমন্ত্রীর জন্য পুজো উপহার পাঠালেন শেখ হাসিনা

এছাড়াও অন্ধ্রপ্রদেশ এবং কর্ণাটকে আগামী দু থেকে তিন দিন ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। আলিপুর জানিয়েছে, আগামী ৪৮ ঘণ্টায় উত্তরবঙ্গে বৃষ্টির সম্ভাবনা কম। তবে দক্ষিণে বিক্ষিপ্ত ভাবে বজ্রবিদ্যুত্‍-সহ হাল্কা থেকে মাঝারি হতে পারে। আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস বুধবার থেকে বৃষ্টির তীব্রতা এবং স্থায়িত্ব বাড়বে দক্ষিণবঙ্গে।

কলকাতা-সহ বিভিন্ন জেলায় বুধ, বৃহস্পতিবার এবং শুক্রবার বেশি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। আলিপুর জানিয়েছে, আজ কলকাতায় আংশিক মেঘলা আকাশ থাকবে সারাদিন। আর্দ্রতা জনিত অস্বস্তি সকাল থেকেই বজায় রয়েছে। দু-এক পশলা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে শহর ও শহরতলিতে। কলকাতার বেশ কিছু অংশে ইতিমধ্যেই ঝেঁপে বৃষ্টি শুরু হয়ে গিয়েছে।

আজ সকালে শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৬.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস যা স্বাভাবিকের থেকে ২ ডিগ্রি বেশি। ন্যদিকে গতকাল সন্ধ্যায় কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩২.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ গত কয়েক দিন ধরেই অত্যন্ত বেশি। যার জেরে দিনের বেলা ভ্যাপসা-গুমোট গরমে টেকা দায়। চরম আর্দ্রতাজনির অস্বস্তিতে হাঁসফাঁস অবস্থা কলকাতাবাসীর।

দক্ষিণবঙ্গের অন্যান্য জেলাতেও ছবিটা একই। আজ বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বোচ্চ ৯৮ শতাংশ এবং সর্বনিম্ন ৭০ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় ছিটেফোঁটা বৃষ্টিও হয়নি। ২১ থেকে ২৬ অক্টোবর অর্থাত্‍ পুজোর সময়ে কলকাতায় বৃষ্টির পরিমাণ, তীব্রতা ও স্থায়িত্ব বাড়বে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর। বিশেষ করে ২২ থেকে ২৪ তারিখ পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আলিপুর।

মৌসম ভবন জানিয়েছে, মধ্য বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ তৈরির পাশাপাশি একটি পূর্ব-পশ্চিম মৌসুমী অক্ষরেখা তৈরি হচ্ছে। যেটি আপাতত পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর থেকে কর্নাটক উপকূল পর্যন্ত বিস্তৃত। এই সক্রিয় মৌসুমী অক্ষরেখার প্রভাবে কেরল ছাড়া দক্ষিণ ভারতের বাকি রাজ্যগুলিতে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

 

সুত্র: THE WALL

মন্তব্য করুন ..

আরও পড়ুন ::

Back to top button