Jannah Theme License is not validated, Go to the theme options page to validate the license, You need a single license for each domain name.
রাজনীতিরাজ্য

‘দিদির প্রধানমন্ত্রী হওয়ার আশায় বসে রয়েছেন উনি’- ঘাটাল ইস্যুতে দেবকে খোঁচা দিলীপের

Dilip Ghosh : ‘দিদির প্রধানমন্ত্রী হওয়ার আশায় বসে রয়েছেন উনি’- ঘাটাল ইস্যুতে দেবকে খোঁচা দিলীপের - West Bengal News 24

‘তৃণমূল ১০ বছর ক্ষমতায় আছে,ঘাটাল মাস্টার প্লান নিয়ে কেন কিছু ভাবেননি’ বলে দেবকে ঘাটাল ইস্যুতে প্রশ্ন ছুড়লেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। নিউটাউন ইকোপার্কে প্রাতঃভ্রমণে এসে এদিন উপনির্বাচন ইস্যুতেও বার্তা দিয়েছেন তিনি।

‘উনি এখন বসে আছেন দিদি কখন প্রধানমন্ত্রী হবেন’ বলে দেবকে ঘাটাল ইস্যুতে তোপ দাগলেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ।নিউটাউন ইকোপার্কে প্রাতঃভ্রমণে এসে এদিন উপনির্বাচন ইস্যুতেও বার্তা দিয়েছেন তিনি।

ঘাটালের মাস্টার প্লান প্রসঙ্গে দেবকে এদিন মোক্ষম খোঁচা দিলেন দিলীপ ঘোষ। সাতবছর হয়ে গেছে এতদিন যাননি কেন, প্রশ্ন তোলেন দিলীপ। এরপরেই বলেন,’ এখন নীতি আয়োগ মনে পরেছে, পার্লামেন্টে যান না। ঘাটালের মানুষের যন্ত্রণা একশো বছর ধরে চলছে। তিনি সাত বছর বসে আছেন, বিরোধীরা কথা বললেই তবে যাবেন। উনি এখন বসে আছেন দিদি কখন প্রধানমন্ত্রী হবেন, তারপর ঘাটাল হবে।

আরো পড়ুন : নিজস্ব গাড়িতে ‘পুলিশ’ স্টিকার লাগাতে পারবে না সিভিক ভলান্টিয়াররা, কড়া নির্দেশ জয়েন্ট সিপির

তৃণমূল ১০ বছর ক্ষমতায় আছে,ঘাটাল মাস্টার প্লান নিয়ে কেন কিছু ভাবেননি। তাতে পঞ্চাশ শতাংশ টাকা রাজ্যেকে দিতে হবে,সেটা দিতে উনি রাজি নন। মোদী করে দেবেন আর দিদি নামে কামাবেন, এটা চলতে পারে না। এদিন নাজিয়া গ্রেফতার প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেন, উনি কি আদৌও দলে আছেন, উনি তৃণমূলের পার্টি অফিস থেকে ধরা পরেছেন। একসময় বিজেপিতে ছিলেন। এখন কি আছেন বলে প্রশ্ন তোলেন তিনি। একবছর ধরে আমি পার্টি অফিসে দেখেনি। কোনও অপরাধ করে থাকলে আইন ব্যবস্থা নেবেন।

কোভিড আবহে উপনির্বাচন নিয়ে দিলীপ ঘোষ বলেছেন,’আমাদের রাজ্যে তথ্য গোপন করা হয়। তৃণমূল করোনা ভুলে গিয়ে বাই ইলেকশন করতে চায়। মানুষকে সচেতন থাকতে হবে। ইলেকশন ভুলে গিয়ে মানুষকে বাঁচানোর চিন্তা করা উচিত। এর আগে এখানে বাই ইলেকশন হয়নি,তখন মুখ্যমন্ত্রী গিয়ে বলেননি বাই ইলেকশন করার কথা। দেশের অনান্য জায়গাতে বাই ইলেকশন হয়নি,করোনা পরিস্থিতিতে সরকারি লকডাউন লাগিয়ে রেখেছে। তারপরই উপনির্বাচন চাইছে।’

আরো পড়ুন : কামারহাটিতে তৃণমূলের পার্টি অফিসে বোমাবাজি, গুলিতে আহত ৬

প্রসঙ্গত, ‘উপনির্বাচনের পরিস্থিতি নেই রাজ্যে’ বলে উল্লেখ করে ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় নের্তৃত্বকে চিঠি দিয়েছে রাজ্য বিজেপি। বিজেপির ওই চিঠিতে বলা হয়েছে, ‘রাজ্যে কোভিড পরিস্থিতি এখনও স্বাভাবিক হয়নি। লোকাল ট্রেন বন্ধ রয়েছে।

কম সংখ্যক যাত্রী নিয়ে বাস চলাচল করছে। সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে তৃতীয় ঢেউ আসার কথা রয়েছে। এদিকে উত্‍সবের মাস অক্টোবর, রয়েছে দুর্গাপুজো। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের বিধিনিষেধের কথা তুলে ধরেছে বিজেপি। যদিও এরপরেই বৃহস্পতিবার দ্রুত উপনির্বাচন চেয়ে ফের কমিশনে যায় তৃণমূলের শীর্ষ নের্তৃত্ব।

সূত্র : এশিয়া নেট

আরও পড়ুন ::

Back to top button