জাতীয়

তালিবানি শাসন চালাচ্ছে বিজেপি সরকার, দাবি কৃষক নেতা রাকেশ টিকাইতের

হরিয়ানায় আন্দোলনরত কৃষকদের ওপর লাঠি চালিয়েছে পুলিশ। এই নিয়ে তীব্র ক্ষোভ উগরে দিলেন কৃষক নেতা রাকেশ টিকাইত। বিজেপি-কে তুলনা করলেন তালিবানের সঙ্গে। বললেন, ওরা জাতীয় পতাকার পর্যন্ত সম্মান করে না।

এএনআই একটি ভিডিও শেয়ার করেছে। তাতে রাকেশ টিকাইত বলছেন, ‘‌সরকারি তালিবান গোটা দেশ দখল করেছে। ওদের কমান্ডার দেশে উপস্থিত। এই কমান্ডারদের শনাক্ত করতে হবে। যে লোকটি কৃষকদের মাথা ভাঙার নির্দেশ দিয়েছে, সেও ওই কমান্ডারদের মধ্যে সামিল।’‌

একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। তাতে দেখা গিয়েছে, সাব ডিভিশনাল ম্যাজিস্ট্রেট আয়ুশ সিনহা বলছেন, কর্নালে ‘‌প্রতিবাদী কৃষকদের মাথা ভেঙে দাও’‌। সেই নিয়েই এদিন তীব্র খোঁচা দিলেন টিকাইত। তিনি এও বললেন, ‘‌বিজেপি জাতীয় পতাকাকেও সম্মান করে না। সম্প্রতি এক জন (‌কল্যাণ সিং)‌ মারা গিয়েছেন।

আরো পড়ুন : ‘প্রয়োজনে অন্যদেশে ঢুকে জঙ্গি নিকেশেও সক্ষম ভারত’, পাকিস্তানকে হুঁশিয়ারি রাজনাথের

ওরা জাতীয় পতাকার ওপর বিজেপি-র পতাকা মেলে দেয়। ওরা এভাবে জাতীয় পতাকার অসম্মান করেছে।’‌ একটি টুইটে হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রীকে ‘‌জেনারেল ডায়ার’‌-এর সঙ্গেও তুলনা করেছেন এই কৃষক নেতা। এই ডায়ারই জালিওয়ানওয়ালা বাগ হত্যার নির্দেশ দেন।

বিজেপি শাসিত হরিয়ানার কার্নালে বস্তারা টোল প্লাজার কাছে জাতীয় সড়কে জড়ো হয়েছিলেন কৃষকরা। আসন্ন পুরসভা নির্বাচনের প্রচারে এই পথ দিয়েই একটি সভায় হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহরলাল খট্টরের যাওয়ার কথা ছিল। তাঁর এবং বিজেপির অন্যান্য নেতার কনভয় রুখে দেওয়ার লক্ষ্যে সকাল থেকেই চাষিরা কালো পতাকা নিয়ে রাস্তায় ভিড় জমান।

কারনালের একটি হোটেলের বাইরে বিজেপির সভা চলছিল। চাষিরা সেখানেই পৌঁছতে চেয়েছিলেন। সেটা না পেরে কালো পতাকা নিয়ে টোল প্লাজা অবরোধ করেন তাঁরা। নেতাদের গাড়ি আটকাতে না পারলেও বিজেপি-বিরোধী স্লোগান দিতে থাকেন। তাঁদের সরাতে পুলিশ লাঠি চালাতে শুরু করে। চাষিদের রক্তে ভেজা জামা, ব্যান্ডেজ বাঁধা আহত চাষিদের ছবি, ভিডিও দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে সমাজমাধ্যমে। অন্তত দশ জন চাষি আহত বলে সংবাদমাধ্যমে খবর।

সূত্র: আজকাল

আরও পড়ুন ::

Back to top button