জানা-অজানা

সৌন্দর্য রক্ষায় রানি ক্লিওপেট্রাও খেতেন এই শাক

সৌন্দর্য রক্ষায় রানি ক্লিওপেট্রাও খেতেন এই শাক - West Bengal News 24

মিশরের রানির সৌন্দর্য মহিমান্বিত করেনি এমন কোনো রাজার সন্ধান ইতিহাসে নেই। নিজের সৌন্দর্য ধরে রাখতে বিশেষ পন্থা অবলম্বন করতেন তিনি। যার অনেক তথ্যই বিশ্ববাসীর কাছে অজানা। কিন্তু এরপরও মানুষ তার রূপের গোপন রহস্য খুঁজে বের করেছে। সৌন্দর্য ধরে রাখতে কি খেতেন এ মিশরীয় রানি আসুন তা জেনে নেই আজকের আয়োজনে।

ক্লিওপেট্রা ছিলেন প্রাচীন মিশরীয় প্টলেমিয় রাজবংশের সদস্য। মহামতি আলেকজান্ডারের মৃত্যুর পর তার একজন সেনাপতি মিশরের কর্তৃত্ব দখল করেন ও প্টলেমিয় রাজবংশের গোড়াপত্তন করেন। এ বংশের বেশিরভাগ সদস্য গ্রিক ভাষায় কথা বলতেন এবং তারা মিশরীয় ভাষা শিখতে অস্বীকৃতি জানিয়েছিলেন।

আর এ কারণে রোসেত্তা স্টোনের সরকারি নথিপত্রে মিশরীয় ভাষার পাশাপাশি গ্রিক ভাষার প্রচলন লক্ষ করা যায়। কিন্তু এক্ষেত্রে ব্যতিক্রমী ছিলেন ক্লিওপেট্রা। তিনি মিশরীয় ভাষা শিখেছিলেন এবং নিজেকে একজন মিশরীয় দেবীর পুর্নজন্ম হিসেবে আখ্যায়িত করেছিলেন।

আরও পড়ুন :: একই স্বপ্ন বারবার দেখছেন? এর কারণ কী?

বাবা চতুর্দশ প্টলেমি অলেটেসের সঙ্গে ক্লিওপেট্রা দ্বৈতভাবে মিশর শাসন করতেন। তবে বাবার মৃত্যুর পর তিনি তার ভাই ত্রয়োদশ প্টলেমি ও চতুর্দশ প্টলেমির সঙ্গে রাজ্য শাসন করতেন। তৎকালীন মিশরীয় ঐতিহ্য অনুসারে তিনি তাদেরকে বিয়েও করেছিলেন।

রাজত্ব হাত ছাড়া করেও ভাইয়েরা তা মেনে নিয়েছিল শুধু ক্লিওপেট্রার বুদ্ধি আর রূপের কারণে। শুধু মিশরই নয়, তার সৌন্দর্যে মোহিত হয়েছিল রোমসহ আরও কয়েক সাম্রাজ্য।

শোনা যায়, মিশরের রানি ক্লিওপেট্রা ত্বক ভালো রাখার জন্য পাট পাতা খেতেন। তবে সেই পাট পাতা মূলত তোষা বা বগী পাট থেকে পাওয়া যেত। বাংলাতে এ পাটের প্রচলন থাকলেও খাদ্যগুণে অল্প হলেও এগিয়ে থাকবে বাংলার দেশি পাট শাকই।

পাট পাতায় থাকা ফাইবার কোষ্ঠকাঠিন্য ও পরিপাকের সমস্যা দূর করে। এতে থাকা ওমেগা-৩ ফ্যাট। এই ধরনের স্নেহ পদার্থ দেহে প্রদাহ হ্রাস করতে সাহায্য করে।

পাট পাতায় থাকা ভিটামিন এ চোখের স্বাস্থ্য ভালো রাখে। ত্বকের ‘এপিথেলিয়াল’ কোষ সতেজ রাখতেও এই পাতা দারুণ কার্যকরী।

এতে থাকা ভিটামিন সি একটি শক্তিশালী অ্যান্টি অক্সিড‍্যান্টও বটে, যা মানসিক চাপ, দূষণ ও কোষের জারণ প্রক্রিয়ার ক্ষতিকর প্রভাব হ্রাস করে। পাশাপাশি পাট শাকে ‘লাইকোপিন’ নামক এক প্রকারের অ্যান্টি অক্সিড‍্যান্ট থাকে যা জারণ প্রক্রিয়ায় ক্ষতিগ্রস্ত কোষকে পুনরুজ্জীবিত করতে সহায়তা করে। তাই ক্লিওপেট্রার মতো সুন্দরী হতে এ পাতা খাওয়া আজ থেকেই শুরু করে দিন।

সূত্র: আনন্দবাজার

মন্তব্য করুন ..

আরও পড়ুন ::

Back to top button