জীবন যাত্রা

ভালোবাসার নারীর মুখে যে প্রশংসাগুলো পুরুষকে গর্বিত করে তোলে

প্রিয় মানুষটির কাছ থেকে প্রশংসা বাক্য শুনতে কার না ভালো লাগে বলুন। অনেক সময় একটি প্রশংসা বাক্য পুরো দিনের অমানুষিক পরিশ্রমের কষ্ট, মানসিক চাপ এবং সকল অপ্রিয় ঘটনা মুছে ফেলতে পারে। অনেক কষ্টের মাঝে ঠোঁটের কোণে এক চিলতে হাসি এনে দিতে পারে পছন্দের মানুষটির প্রশংসা বাক্য। মনের মধ্যে একধরণের আত্মবিশ্বাস যোগায়।

মেয়েরা নিজেদের প্রশংসা শুনতে অনেক পছন্দ করেন, কিন্তু এই দিক থেকে পিছিয়ে নেই ছেলেরাও। মুখে প্রকাশ না করলেও ছেলেরা তার প্রিয়তমার কাছ থেকে প্রশংসা বাক্য শুনতে বেশ উন্মুখই থাকেন। নিজের সঙ্গিনীর প্রশংসা বাক্য শুনলে মুখে আত্মবিশ্বাসের হাসি ফুটে ওঠে সকল পুরুষের। এবং রীতিমত গর্বিত বোধ করেন তারা এবং ভালোবাসার নারীকে ভালোবেসে ফেলেন আরও একটু বেশী।

‘তুমি অনেক হ্যান্ডসাম’
নিজের রূপের প্রশংসা শুধু মেয়েরাই শুনতে পছন্দ করেন তা নয়। ছেলেরাও বেশ পছন্দ করেন। সুন্দর, মানানসই পোশাক পড়ে, চুলের বিভিন্ন কাটে নিজের সঙ্গিনীর সামনে দাড়ান সঙ্গিনীর প্রশংসা বাক্য শুনতেই। মনে মনে চান তার এই কষ্ট ও সময় ব্যয়ের মূল্য সঙ্গিনীর মুখের একটি প্রশংসাই হোক। আর একারণেই যদি সঙ্গিনী বলেন ‘তুমি অনে হ্যান্ডসাম’, ‘তোমাকে অনেক সুন্দর লাগছে’ তখন মুখে তাচ্ছিল্যের ভাব ফুটে উঠলেও গর্বে বুক ফুলে উঠে।

‘তুমি তো অনেক বুদ্ধিমান’
ছেলেদের কাছে বুদ্ধিমত্তার মূল্য অনেক বেশি। তারা চান তার বুদ্ধির প্রশংসা করুক তার সঙ্গিনী। মাথা খাটিয়ে কাজ করার ব্যাপারে অনেক আগ্রহী থাকেন বলেই ছেলেরা চান তার এই বুদ্ধির প্রশংসা করা হোক। তার কাজ নিয়ে তাকে উৎসাহিত করা হোক এই জিনিসটিও ছেলেদের মধ্যে বেশ প্রবল। নিজের সঙ্গিনীর কাছ থেকে পাওয়া এইসকল প্রশংসা বাক্যই অনুপ্রেরণা যোগায়।

‘তোমাকে ছাড়া আমি কিচ্ছুই করতে পারতাম না’
এই কথাটি সঙ্গিনীর মুখে শুনলে ছেলেরা নিজেদের অনেক বেশি গর্বিত ভাবেন। নিজের প্রতি অনেক বেশি আত্মবিশ্বাস আসে। এবং সঙ্গিনীর প্রতি ভালোবাসা বৃদ্ধি পায়। ছেলেরা চান তার সঙ্গিনী তার প্রতি কিছুটা হলেও নির্ভরশীল থাকুন। তারা সব সময়েই চান সঙ্গিনীর নিরাপত্তার দায়িত্ব নিতে। আর সেখানে এই প্রশংসাবাক্য শুনলে নিজেদের অনেক বেশি শক্তিশালী ভাবেন।

‘তুমি আমার জীবনে এসেছ বলেই আমি এতো সুখি’
নিজের ভালোবাসার প্রশংসা সকলেরই শুনতে বেশ ভালো লাগে। যখন সঙ্গিনী তার ভালোবাসার প্রশংসায় এই কথাটি বলে প্রকাশ করেন তিনি কতোটা সুখি তখন পুরুষটি নিজেকে সবচাইতে সুখি ব্যক্তি হিসেবে মনে করেন।

‘তোমার মতো করে কেউ আমাকে বুঝতে পারবে না’
মেয়েরা একজন পুরুষের কাছেই নিজের নিরাপত্তা খোঁজেন, নিজের ভবিষ্যতের নিশ্চয়তা খুঁজে পান। এই জিনিসটি পুরুষ খুব ভালো ভাবেই জানেন। আর তাই তিনি সব সময় চান তার সঙ্গিনী তার কাছে নিরাপত্তার নিশ্চয়তা পাক। এই কথাটি সঙ্গীর প্রতি নির্ভরতা প্রকাশ করে থাকে যা পুরুষেরা শুনতে চান তার প্রিয়তমার কাছ থেকে।

আরও পড়ুন ::

Back to top button