জীবন যাত্রা

মনের মতো প্রেমিকা চিনবেন কীভাবে?

সবাই চায় মনের মতো একজন ভালো প্রেমিকা। যে আপনাকে সব সময় ভালো বাসবে। তাহলে প্রেমিকা কেমন হওয়া উচিত? এমন প্রশ্ন যদি আপনার প্রেমিকাকে করেন আপনাকে অবশ্যই মারতে আসবে। এবং আপনাকে গালাগালিও করতে পারে। পুরুষেরা আসলে তার প্রিয় মানুষটিকে নির্বাচন করতে একটু খুঁতখুঁতেই হয়ে থাকেন। প্রেমিকা হবে ডানা কাটা পরী। না হলে বন্ধুদের হিংসার পাত্র হতে হবে।

কিন্তু গবেষনা বলে অন্য কথা, এসবই বেহাৎ বাহ্যিক সৌন্দর্য। তাই বাইরের চাকচিক্যে মুগ্ধ হয়ে প্রেমিকা নির্বাচন করে অনেকেই বিবাহ পরবর্তী জীবনে ভোগেন নানান সমস্যায়।ম্পর্কে অশান্তি তো বটেই, বিয়ের পর পরিবারেও শুরু হয় অশান্তি। তাই ‘পারফেক্ট’ প্রেমিকা নির্বাচনে পুরুষদেরকে একটু সতর্ক হওয়া উচিত।

এবার আসুন জেনে নেয়া যাক মনের মতো প্রেমিকা নির্বাচনে কী কী বিষয় মাথার রাখবেন-

স্বনির্ভর
প্রেম করার সময়ে অবশ্যই লক্ষ্য রাখুন আপনার প্রেমিকা যেন স্বনির্ভর হয়। স্বনির্ভর হতে হলে তাকে আয় করতে হবে এমন কোনো কথা নেই। পুরুষসঙ্গী ছাড়া একেবারেই কোনও কাজ করতে পারেন না এমন কোনো নারীর সাথে সম্পর্কে গড়ে তোলা উচিত না। কারণ আপনার উপর অতিরিক্ত নির্ভরশীলতা একসময়ে আপনার বিরক্তির কারণ হয়ে দাঁড়াতে পরে।

আপনার প্রতি যত্নশীল
আপনার পছন্দের নারীটি যদি আপনার প্রতি যত্নশীল হয় তাহলে সে হতে পারে আপনার জন্য ‘পারফেক্ট’ প্রেমিকা। আপনার খোঁজ খবর রাখা, আপনার বিপদের সময়ে মানসিক সহায়তা করা, পাশে থাকা ইত্যাদি গুণগুলোর সমন্বয়েই তিনি হয়ে উঠতে পারেন আপনার জন্য ‘পারফেক্ট’ প্রেমিকা।

পরিবারের প্রতি শ্রদ্ধাশীল
প্রেম করার আগে খেয়াল করুন মেয়েটি আপনার পরিবারের প্রতি শ্রদ্ধাশীল কি না। আপনার পরিবারের সম্পর্কে কথা বলার সময়ে মেয়েটি যদি আপনার পরিবারকে যথেষ্ট সম্মান দিয়ে কথা বলে এবং আন্তরিকতা দেখায় তাহলে প্রেমিকা হিসেবে মেয়েটি হতে পারেন ‘পারফেক্ট’।

মিশুকে স্বভাবের, তবে প্রগলভ নয়
আপনার ড্রিম গার্ল কি বেশ মিশুকে স্বভাবের? আপনার পরিবার, বন্ধু কিংবা কাছের মানুষদের সাথে তার আচরণ যদি যথেষ্ট আন্তরিক হন, তাহলে তার সাথে সম্পর্কটি এগিয়ে নিয়ে যাওয়া আপনার পক্ষে সহজ হবে। প্রেমিকা হিসেবে তিনি হতে পারেন একজন ‘পারফেক্ট’ প্রেমিকা।

নির্লোভ
অতিরিক্ত লোভী কারো সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলাটা হবে একেবারেই বোকামি। আর তার কারণ হলো নানান রকমের বায়না মেটাতে মেটাতে একটা সময়ে হয়তো ক্লান্ত হয়ে যাবেন আপনি। তখন শুরু হবে মনোমালিন্য এবং সম্পর্কের টানাপোড়েন।

আরও পড়ুন ::

Back to top button