Jannah Theme License is not validated, Go to the theme options page to validate the license, You need a single license for each domain name.
জীবন যাত্রা

স্বামী বা স্ত্রী, একে অপরের থেকে যে জিনিসগুলো ভুলেও লুকাবেন না!

স্বামী বা স্ত্রী, একে অপরের থেকে যে জিনিসগুলো ভুলেও লুকাবেন না!

‘যদিদং হৃদয়ং…’ পুরোহিতের মন্ত্রোচ্চারণের সঙ্গে সঙ্গেই গাঁটছড়াটা বাঁধা হয়ে যায়। মা-ঠাকুরমারা বলে থাকেন, ‘সাত জনমের বাঁধন।’ দাম্পত্য সম্পর্ক। বিশ্বাস, ভরসা, নির্ভরশীলতা, নিরাপত্তা, প্রেম, আবেগ- সবের মিশেল এই দাম্পত্য। দুটি ভিন্ন পরিবারের দুটি ভিন্ন মানুষের এই সম্পর্কের মধ্যে স্বচ্ছতা যত বেশি হয়, ততই গাঢ় হয় প্রেম। দাম্পত্য সম্পর্ককে সুন্দর করতে স্বামী-স্ত্রী, উভয়েরই উচিত কিছু জিনিস কখনওই একে অপরের থেকে না লুকানো। কী কী?

১) পুরনো প্রেম, ফ্লার্টিং: কলেজ লাইফে কি তার পরে একটা, দুটো- যটা প্রেমই করে থাকুন না কেন, একে অপরের থেকে লুকাবেন না। কারণ অতীত হঠাত্ ফিরে এসে বিগড়ে দেওয়ার চেষ্টা করতে পারে আপনার বর্তমানকে।

২) আগের শারীরিক সম্পর্ক: সাহস দরকার! কিন্তু সেই সাহসটা সঞ্চয় করে নিয়েই আপনার আগে কোনও শারীরিক সম্পর্ক হয়ে থাকলে সেটা অপরকে জানান। প্রাথমিক ঝাপটা কাটিয়ে এই সততা আপনাদের সম্পর্ককে গভীর করবে।

৩) নিরাপত্তাহীনতা: অন্য কারোর সঙ্গে আপনার স্ত্রী বা স্বামীকে দেখলে যদি আপনি নিরাপত্তাহীনতায় ভোগেন, তাহলে সেটা অবশ্যই তাঁকে জানান। নইলে মনের মধ্যে অযথা সন্দেহ দানা বাঁধবে।

৪) দুর্বলতা: আপনার কোনওকিছুর উপর ‘বিশেষ’ দুর্বলতা থাকলে সেটা নির্দ্বিধায় তাঁকে জানান। তিনি সেটা কাটিয়ে উঠতে সাহায্য করবেন।

৫) ঘনিষ্ঠ বন্ধু বা বান্ধবী: কোনও ঘনিষ্ঠ পুরুষ বন্ধু থাকলে স্ত্রীরা কখনওই স্বামীর কাছ থেকে সেটা লুকাবেন না, তেমনি স্বামীদেরও উচিত নয় স্ত্রীর কাছ ঘনিষ্ঠ মহিলা বান্ধবীদের কথা লুকানো।

৬) ফ্লার্টিং: অফিস বা কাজের জায়গায়, অনেকসময় পরিবারের মধ্যেও কেউ যদি আপনার সঙ্গে ফ্লার্টিং করে, আপনাকে কুপ্রস্তাব দেয়, সঙ্গে সঙ্গে সেটা অপরকে জানান।

৭) নিজস্ব সময়: আপনি কোন সময়টা নিজের সঙ্গে কাটাতে চান, সেটা আগে থেকেই অপরকে জানিয়ে রাখুন। ফোন সুইচড অফ করার আগে তাঁকে জানিয়ে দিন।

আরও পড়ুন ::

Back to top button