কলকাতা

৪৬ ঘণ্টা বাড়ির ‘ফ্রিজারে’ পড়েছিল করোনায় মৃত বৃদ্ধের দেহ !

৪৬ ঘণ্টা বাড়ির 'ফ্রিজারে' পড়েছিল করোনায় মৃত বৃদ্ধের দেহ !

 

ওয়েবডেস্ক :: কলকাতা: করোনা সন্দেহে মৃত্যুর পর দু’দিন ধরে বাড়িতে পড়ে থাকল মৃতদেহ। পরিবারের অভিযোগ, সত্‍কারের জন্য স্বাস্থ্যভবন, পুরসভাকে বলেও কোনও লাভ হয়নি। শেষে কলকাতা পুরসভার স্বাস্থ্যবিভাগের উদ্যোগে ৪৮ ঘণ্টা পর দেহ সত্‍কার হয়। বিকেলে বৃদ্ধের রিপোর্ট পজেটিভ আসে।

জানা গিয়েছে, আমহার্স্টস্ট্রিটের বাসিন্দা মৃত ওই ব্যক্তির নাম মোহন মল্লিক। সোমবার দুপুর তিনটে থেকে বুধবার বেলা তিন’টে পর্যন্ত বাড়িতে রাখা ছিল দেহ । মৃতের ছেলের অভিযোগ, করোনা আক্রান্ত সন্দেহে দেহ রাখতে চায়নি পিস ওয়ার্ল্ড এবং পিস হাভেন।

এমনকি থানা, কাউন্সিলরকে জানিয়েও লাভ হয়নি। ফলে বাড়িতেই ফ্রিজারে বৃদ্ধের দেহ সংরক্ষণ করে তাঁরা। এরপর বুধবার বিকেলে বৃদ্ধের দেহ নিয়ে যায় পুরসভার গাড়ি। আজ বৃদ্ধের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

মৃতের ভাইপো জানিয়েছেন, বৃদ্ধের জ্বর-সর্দির মতো উপসর্গ ছিল। সোমবার দুপুরে খাওয়াদাওয়ার পর আচমকাই বাড়িতে অসুস্থ হয়ে পড়েন। তারপর স্থানীয় চিকিত্‍সককে ডাকা হয়। তিনি এসে মোহনবাবুকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। দেহ কোথাও না নিয়ে যাওয়ায় বাড়িতেই বরফ দিয়ে দেহ রাখার বন্দোবস্ত করেন মৃতের পরিবারের লোকজন।

সুত্র: News18

মন্তব্য করুন ..

আরও পড়ুন ::

Back to top button