রাজনীতিরাজ্য

ভবানীপুরকে ভাটপাড়া হতে দেবো না, মমতা জিতবেন ১ লক্ষের বেশি ভোটে! চ্যালেঞ্জ অভিষেকের

ভবানীপুরের (bhabanipur) যদুবাবুর বাজারে এদিন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (abhishek banerjee)ভাষণ শুরু করলেন শোভন চট্টোপাধ্যায়কে ধন্যবাদ জানিয়ে। বললেন, দেশের নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই ভোটে জিতলেই দিল্লির পথে এগিয়ে যাবেন।

সর্বভারতীয় দল তৃণমূলও

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এদিন বলেন, সারা দেশে সর্বভারতীয় দল রয়েছে পাঁচ থেকে ছটি। উল্লেখ করতে গিয়ে তিনি প্রথমেই কংগ্রেসের নাম উল্লেখ করেন। পাশাপাশি তিনি কমিউনিস্টদের নামও উল্লেখ করেছে। সবার শেষে তৃণমূলের নাম উল্লেখ করে বলেছেন, সবকটি দলের সঙ্গে তৃণমূলের তফাত রয়েছে। কেননা তৃণমূল চোখে চোখ রেখে লড়াই করছে। ভবিষ্যতে তৃণমূলই পারবেন মোদীকে দিল্লির গদি থেকে সরাতে। বলেছেন অভিষেক।

আরও পড়ুন : রাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে সংক্রমিত ৭৪৮ জন, প্রাণ কেড়েছে ৯ জনের

বাংলার মাটিতেই সীমাবদ্ধ নয় তৃণমূল

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, এবার রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের পর থেকে এমন কোনও রাজ্য নেই, যেখানে থেকে চিঠি আসেনি, যে সেখানে তৃণমূলের শাখা খুলতে হবে। তিনি দাবি করেছেন লক্ষ লক্ষ চিঠি তৃণমূল পেয়েছে। ত্রিপুরা, অসমে তৃণমূল কাজ শুরু করে দিয়েছে।

আগামী দিনে তৃণমূল ত্রিপুরায় সরকার গঠন করবে বলে দাবি করেছেন অভিষেক। তাঁকে ঠেকাতেই ত্রিপুরায় ১৪৪ ধারা জারি করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেছেন তিনি। পাশাপাশি তিনি প্রশ্ন করেছেন, কতদিন ত্রিপুরায় ১৪৪ ধারা জারি করে রাখবেন? যেদিনই ১৪৪ ধারা তোলা হবে, সেদিনই তিনি সেখানে যাবেন বলে জানিয়েছেন। পাশাপাশি গোয়াও তৃণমূল তৈরি হচ্ছে বলে জানিয়েছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

মমতাই পারেন মোদীকে হারাতে

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, একমাত্র মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই পারেন নরেন্দ্র মোদীকে হারাতে। তাই এই ভোট শুধু ভবানীপুরের ভোট নয়। এই ভোটে জয় পেলে তা দিল্লির দিকেও একধাপ এগিয়ে নিয়ে যাবেন বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি। এই ভোট দিল্লিতে পরিবর্তনের ভোট বলেও দাবি করেন তিনি। অভিষেক বলেছেন, বাংলা প্রমাণ করেছে, বাংলা তার মেয়েকেই চায়। এবার ভবানীপুরকে প্রমাণ করতে হবে, তারা ভবানীপুরের মেয়েকেই চায়।

আরও পড়ুন : ‘‌বন্‌ধ সমর্থন করি না, কিন্তু কৃষকদের আন্দোলনকে সমর্থন করি’‌, প্রচারসভায় অবস্থান স্পষ্ট মমতার

ভবানীপুরকে ভাটপাড়া হতে দেবো না

এদিন প্রচারে যদুবাবুর বাজারে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ১ লক্ষ ভোটে জেতানোর চ্যালেঞ্জ নিয়েছেন। একইসঙ্গে তিনি বলেছেন, ভবানীপুরকে তিনি ভাটপাড়া হতে দেবেন না। অভিষেক বলেছেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্যই মা-বোনেরা রাস্তায় বেরোতে পারছেন।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে রোমে যেতে অনুমতি না দেওয়া প্রসঙ্গে বলেন, ভারত থেকে একমাত্র তিনিই আমন্ত্রণ পেয়েছিলেন। জনপ্রিয়তায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মোদীর থেকে এগিয়ে। তা নিয়ে হিংসে করেই এই অনুমতি দেওয়া হয়নি বলে মন্তব্য করেছেন অভিষেক।

সূত্র: ওয়ান ইন্ডিয়া

আরও পড়ুন ::

Back to top button