রাজ্য

পিএসি চেয়ারম্যান পদে থাকছেন মুকুল রায়? সিদ্ধান্ত নেবেন স্পিকারই, জানাল হাই কোর্ট

বিধানসভার পাবলিক অ্যাকাউন্টস কমিটি বা পিএসি-র (PAC Chairman) চেয়ারম্যান পদে মুকুল রায়ের (Mukul Roy) মেয়াদ নিয়ে রায় ঘোষণা করল কলকাতা হাইকোর্ট (Calcutta High Court)। দিন কয়েক আগেই এই মামলার রায় ঘোষণা সংরক্ষিত রেখেছিল হাইকোর্ট।

আর এদিন কলকাতা হাইকোর্ট জানিয়ে দিল, মুকুল রায় বিধানসভার পাবলিক অ্যাকাউন্টস কমিটি বা পিএসি-র চেয়ারম্যান থাকবেন কিনা, তা সিদ্ধান্ত নেবেন বিধানসভার স্পিকারই। অর্থাত্‍, হাইকোর্টের রায়ে রীতিমতো স্বস্তি পেলেন বিজেপি থেকে তৃণমূলে আসা মুকুল রায়। একই সঙ্গে এদিনের রায়ে উজ্জীবিত হল তৃণমূলও।

তবে, সুপ্রিম কোর্টের একটি রায়ের ভিত্তিতে হাইকোর্ট জানিয়েছে, আগামী ৭ অক্টোবরের মধ্যে বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়কে জানাতে হবে, তিনি মুকুল রায়কেই পিএসি চেয়ারম্যান হিসেবে রাখছেন কিনা। তৃণমূল সূত্রের খবর, হাইকোর্টের রায়ের পর মুকুল রায়কে নিয়ে কিছুটা স্বস্তি পেল দল। তবে স্পিকারের সিদ্ধান্তের পর হাইকোর্ট এ বিষয়ে কী পদক্ষেপ নেয়, সেদিকেই তাকিয়ে থাকবে রাজনৈতিক মহল।

আরও পড়ুন : ‘মুখ্যসচিব যেন রাজনৈতিক দলদাস’, ভবানীপুর উপনির্বাচন মামলায় তীব্র ভর্ত্‍সনা হাইকোর্টের

প্রসঙ্গত, পিএসি চেয়ারম্যান পদ থেকে মুকুল রায়কে খারিজের দাবিতে হাইকোর্টে মামলা দায়ের করেছিলেন বিজেপি বিধায়ক অম্বিকা রায়। BJP বিধায়কের আইনজীবী আদালতের কাছে সওয়ালে বলেছিলেন, গত ৫৪ বছর ধরে বিরোধী শিবির থেকেই বিধানসভার পাবলিক অ্যাকাউন্টস কমিটির চেয়ারম্যান মনোনীত করা হয়। এটা একপ্রকার প্রথা হিসেবেই চলে আসছে। মুকুল রায় বিজেপির থেকে জিতে বিধায়ক হলেও এখন তিনি তৃণমূলে চলে গিয়েছেন। তাই এই পরিস্থিতিতে মুকুল রায়কে পিএসি চেয়ারম্যান করে প্রথা ভেঙেছে শাসক দল।

গত ২৪ অগস্ট এই মামলার শুনানিতে কলকাতা হাইকোর্টের ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি জানতে চান, পিএসি চেয়ারম্যান হতে কি কোনও রাজনৈতিক ছাড়পত্র লাগে? তিনি এও জানতে চান, পিএসি-র চেয়ারম্যান কি বিরোধী দল থেকে করাটাই নিয়ম? সরকার ও মামলাকারীর আইনজীবী উভয় পক্ষের কাছেই এ বিষয়ে মতামত চেয়েছিলেন তিনি।

রাজ্যের তরফে অবশ্য এ বিষয়ে হলফনামা পেশ করে জানানো হয়েছিল, সংবিধানে ২১২ নম্বর অনুচ্ছেদ অনুসারে, বিধানসভার অন্দরে কোনও বিষয় যদি বিচারাধীন অবস্থায় থাকে, তাহলে তাতে বিচার ব্যবস্থার রায়ের কোনও এক্তিয়ার থাকে না। যদিও তৃণমূল বারবারই বলে এসেছে, মুকুল রায় কাগজেকলমে এখনও কৃষ্ণনগরের বিজেপি বিধায়ক। তাই তাঁকে পিএসি চেয়ারম্যান করায় কোনও প্রথা ভাঙা হয়নি। এদিনের রায়ে অবশ্য শেষমেশ স্বস্তিই পেলেন মুকুল রায়।

সূত্র: নিউজ ১৮

আরও পড়ুন ::

Back to top button