পশ্চিম মেদিনীপুর

বানভাসি এলাকা পরিদর্শনে দেব, ত্রাণের পাশাপাশি করলেন আর্থিক সাহায্য

ঘূর্ণাবর্ত ও নিম্নচাপের জেরে অতিবৃষ্টিতে এখনও জলের তলায় ঘাটালের বিস্তীর্ণ অঞ্চল। পরিস্থিতি পরিদর্শনে প্লাবিত এলাকা ঘুরে দেখলেন তৃণমূল সাংসদ দেব। সোমবার সকালে ঘাটালের তিনটি জায়গা ঘুরে দেখেন দেব। প্রথমে সবংয়ের চাউলকুড়ি গ্রামপঞ্চায়েতের এরাল এলাকায় যান তিনি। পিংলার পর ডেবরার সত্যপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের টেবাগেড়িয়া ঘুরে দেখেন দেব। প্লাবিত এলাকার বাসিন্দাদের হাতে ত্রাণসামগ্রী তুলে দেওয়ার পাশাপাশি করেন আর্থিক সাহায্য।

এমনকি কেউ ত্রাণ না পেলে তড়িঘড়ি এলাকার দলীয় কর্মীদের জানানোর কথাও বলেন দেব। বৃষ্টির জম কমলে প্লাবনে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার বাসিন্দাদের বাড়ি নির্মাণের বন্দোবস্ত করার আশ্বাস দিয়েছেন তারকা সাংসদ। তবে নতুন করে আর বৃষ্টি হয়নি ঘাটালে। কিন্তু কেলেঘাই, কপালেশ্বরী নদীর জল নামছে ধীর গতিতে। পিংলায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত মালিগ্রাম, বাখনাবাঁধ, জলচক এলাকা।

আরও পড়ুন : “জো জিতা ওহি শিকান্দার”, ভবানীপুরে মমতার জয় নিয়ে টুইট তথাগতর

কাঁসাই নদীর জলস্তরও ধীর গতিতে কমছে। জলের তলায় গ্রামের পর গ্রাম। চাষবাস বন্ধ। ঘর ভেঙে আছে অনেকের। অনেকটা বাধ্য হয়ে বাঁধের উপর ত্রিপল খাটিয়ে বাস করছেন অনেকেই। নীচু এলাকার বাসিন্দাদের অন্য জায়গায় সরিয়ে নিয়ে আসা হয়েছে। মাসখানেক আগেও অতিবৃষ্টিতে ঘাটালে প্লাবন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। তখন পরিদর্শনে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।

সূত্র: আজকাল

আরও পড়ুন ::

Back to top button