রাজ্য

রইল না, আর-এম-ও পদ!এই পদ তুলে দিল নবান্ন

প্রত্যেকটি সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে আরএমও বলে একটি পদ থাকে। সেখানে থাকেন দায়িত্বপ্রাপ্ত চিকিত্‍সকরা। এবার আর সেই পদটিই রইল না। কারণ জাতীয় মেডিক্যাল কমিশন বা এনএমসি’‌র নিয়মবিধি মেনেই এই পদ তুলে দিল নবান্ন। বিষয়টি নিয়ে এখন চিকিত্‍সক মহলে চর্চা শুরু হয়ে দিয়েছে। তবে নতুন পদ তৈরি করে সেখানে নিয়োগ হবে বলে খবর।

নবান্ন সূত্রে খবর, জাতীয় নেডিক্যাল কমিশনের বিধি মেনেই পশ্চিমবঙ্গ সরকার রেসিডেন্সিয়াল মেডিক্যাল অফিসারের (আরএমও) বা আবাসিক মেডিক্যাল অফিসারের পদ তুলে দিল। পরিবর্তে ওয়েস্ট বেঙ্গল মেডিক্যাল এডুকেশন সার্ভিসে নিয়োগ শুরু হবে সহকারী শিক্ষক-চিকিত্‍সকের পদ থেকে। ইতিমধ্যেই তার গেজেট বিজ্ঞপ্তিও জারি করেছে রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতর।

তাহলে আরএমও যাঁরা ছিলেন তাঁদের কী হবে?‌ স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে খবর, এইসব চিকিত্‍সকদের পদোন্নতি করা হবে। ইতিমধ্যেই পদোন্নতি দেওয়া হয়েছে। তাই ওই পদ ফাঁকাই হয়ে পড়েছে। তাই পদটি তুলে দিয়ে বিকল্প ভাবনা ভাবা হয়েছে। এতে একদিকে কর্মসংস্থান অন্যদিকে চিকিত্‍সা পরিষেবা আরও বাড়ানো যাবে বলে মনে করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: ‘পরিস্থিতি ঠিক করে দেবে কে প্রধানমন্ত্রী হবেন’ :মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

জানা গিয়েছে, সহকারী শিক্ষক-চিকিত্‍সকের ৫০ শতাংশ পদে সরাসরি নিয়োগ করতে পারবে হেল্‌থ রিক্রুটমেন্ট বোর্ড। আর পোস্ট গ্র্যাজুয়েট সম্পন্ন করে পাঁচ বছরের পোস্ট ডক্টরাল (ডিএম, এমসিএইচ) ডিগ্রি পেয়ে গেলে এবং সুপার স্পেশালিটি পদে দু’বছরের অভিজ্ঞতা থাকলে অ্যাসোসিয়েট প্রফেসরে পদে উন্নীত হওয়ার সুযোগ মিলবে।

এক্ষেত্রেও সরাসরি নিয়োগ করবে হেল্‌থ রিক্রুটমেন্ট বোর্ড। একই ভাবে অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর থেকে পদোন্নতির সূত্রে প্রফেসর হওয়ার সুযোগ থাকছে।

 

সুত্র: ই- নিউজ বাংলা

আরও পড়ুন ::

Back to top button