উঃ ২৪ পরগনা

দুর্গন্ধ পেয়ে প্রতিবেশীরা দেখলেন ৬ দিন ধরে মায়ের লাশ ছেলের কাছে!

দুর্গন্ধ পেয়ে প্রতিবেশীরা দেখলেন ৬ দিন ধরে মায়ের লাশ ছেলের কাছে! - West Bengal News 24

একদিন–দুদিন নয়, টানা ৬ দিন ধরে মায়ের মরদেহ আগলে রেখেছেন ছেলে। চাঞ্চল্যকর এ ঘটনা ঘটেছে দমদমে। দমদম কমলাপুরের বাসিন্দা দীপালি ভট্টাচার্য (৯০) ছয় দিন আগে বাড়িতে মারা যান। তারপর থেকে ছেলে মায়ের মরদেহ আগলে রাখেন।

শুক্রবার দুর্গন্ধ পান প্রতিবেশীরা। তখন তাদের সন্দেহ হওয়ায় তারা বৃদ্ধা দীপালির পরিবারের একজনকে খবর দেন। তিনি সম্পর্কে দীপালির দেবর হন। তিনি এসে বিষয়টি দেখে চমকে যান। তারপর পুলিশে খবর দেন। মৃত দীপালি পাড়ার লোকজনের সঙ্গে মিশতেন। তবে বয়সের ভারে শেষ দিকে বাড়ির বাইরে বের হতেন না।

আরও পড়ুন :: ‘ওটা পার্টি নয়, প্রপার্টি’, তৃণমূলকে আক্রমণ দিলীপের!

পুলিশ সূত্রে খবর, মৃতের দেবর এসে পুলিশে খবর দেন। সেই খবর পেয়ে দমদম থানার পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। দীপালির ছেলে মানসিক ভারসাম্যহীন। দীপালির ছেলে জানান, তিনি ছয় দিন ধরে একই সঙ্গে মায়ের সঙ্গে থাকতেন। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য আর জি কর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

কলকাতার রবিনসন স্ট্রিটে এমন ঘটনা প্রথমে দেখা যায়। তারপর শহর থেকে জেলায় মরদেহ আগলে রাখার ঘটনা বারবার প্রকাশ্যে এসেছে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই মানসিক ভারসাম্য হারানো লোকজনই এমন কাজ করে থাকেন বলে মনস্তত্ত্ববিদরা মনে করেন। এবার একই ঘটনা দেখা গেল দমদমে। যা নিয়ে চলছে আলোচনা।

মন্তব্য করুন ..

আরও পড়ুন ::

Back to top button