অপরাধজাতীয়

ওড়িষায় প্রতিবন্ধীকে জোরপূর্বক পা চাটানোর ভিডিও ভাইরাল

ওড়িষার ময়ূরভঞ্জ থেকে এক ভয়ঙ্কর ভিডিও প্রকাশ পেয়েছে টুইটারে। যেখানে দেখা যায় দুজন লোক এক প্রতিবন্ধী ব্যক্তিকে নির্যাতন করে আরেক ব্যক্তির পা চাটতে বাধ্য করছে। ঘটনাটি এক বছর আগের জানিয়ে পুলিশ বলেছে, অভিযুক্ত দুই জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বুধুবার (১০ আগস্ট) এনডিটিভি প্রকাশিত এক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা যায়।

ভিডিওতে দেখা যায়, প্রতিবন্ধী এক ব্যক্তি মাটিতে বসে কাঁদছেন এবং লাল গেঞ্জি পরা একজন লাঠি হাতে ঘুরে বেড়াচ্ছে। ছেড়ে দেওয়ার আকুতি জানালে লোকটি ওই অসহায় ব্যক্তিকে ভয়ানক পরিণতির হুমকি দেয়। এরপর অন্য এক ব্যক্তি তার পা চেটে দিতে ভুক্তভোগীকে বাধ্য করেন। অসহায় লোকটি বাধ্য হয়ে হলুদ গেঞ্জি পরা লোকটির পা চাটেন। তিনি যখন তার জিহ্বা পরিষ্কার করতে চায় তখন তাকে হুমকি দেওয়া হয় এবং চুল ধরে আরো কয়েকবার পা চাটানো হয়।

ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়েছে দেখতে পেয়ে ময়ূরভঞ্জ’র পুলিশ সুপার টুইটারে ভিডিওটি পালটা টুইট করে লেখেন, গত বছর জুলাই মাসে একটি মাদক নিরাময় কেন্দ্রে ঘটনাটি ঘটেছিল। এই ঘটনায় মামলা দায়ের হয়; দুজনকে গ্রেপ্তারও করা হয়েছে। তাদেরকে আদালতে সোপর্দ করা হবে’।

এদিকে টুইটারে একজন ব্যবহারকারী বলেছেন, ‘প্রতিদিনই আমাদের দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে এক বা একাধিক ভিডিও সামনে আসে। হাজার বছরের ইতিহাস নিয়ে আমরা নিজেদের সভ্য জাতি বলি। কিন্তু আমরা নিজেরা নিজেদের সাথে এমন আচরণ করি যা লজ্জাজনক। ‘

টুইটার ব্যবহারকারীরা জঘন্য এই অপরাধের নিন্দা করার পাশাপাশি দেরিতে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য পুলিশকেও দোষ দিয়েছেন।

আরও পড়ুন ::

Back to top button