উত্তর দিনাজপুর

পরকীয়ার অভিযোগে মহিলাকে খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়া হল দেহ!

পরকীয়ার অভিযোগে মহিলাকে বেধড়ক মারধর! খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়া হল দেহ! রায়গঞ্জ (Raiganj) থানার ভাটোল ফাঁড়ির অন্তর্গত জগদীশপুর গ্রামের ঘটনা। মৃত মহিলার নাম গোলাপি মাহাতো (৪০)। এই ঘটনায় মোট নয়জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন মৃতার পরিবারের লোকজন। ঘটনায় এখনও পর্যন্ত দু’জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

জানা গিয়েছে, বছর তিনেক আগে গোলাপির স্বামী শিরেশ মাহাতোর মৃত্যু হয়। স্বামীর মৃত্যুর পর মুদিখানার দোকান চালাতেন গোলাপি। দোকানের সমস্ত মালপত্র এনে দিতেন গ্রামেরই বাসিন্দা বিশ্বজিৎ সাহা। ধীরে ধীরে দু’জনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

মাসখানেক আগে বিশ্বজিতের সঙ্গে পালিয়ে যান গোলাপি। এক মাস ধরে ছিলেন শিলিগুড়িতে। চলতি মাসের ১০ তারিখ দু’জনকে বাড়িতে আসার কথা বলেন বিশ্বজিতের পরিবারের লোকজন।

সেই মোতাবেক রবিবার রাতে বিশ্বজিৎ গোলাপিকে নিয়ে বাড়ি ফেরেন। তারপর থেকেই যাবতীয় গণ্ডগোলের সূত্রপাত। অভিযোগ, গোলাপিকে বেধড়ক মারধর করেন বিশ্বজিতের বাড়ির লোকজন। এমনকি, তাঁকে খুন করে বাড়ির অদূরে একটি গাছে ঝুলিয়ে দেন অভিযুক্তরা।

এই ঘটনার সঙ্গে বিশ্বজিতের প্রথম পক্ষের শ্বশুরবাড়ির লোকজনও জড়িত রয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। গোটা ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ সুপার মহম্মদ সানা আখতার।

সূত্র : উত্তরবঙ্গ সংবাদ

আরও পড়ুন ::

Back to top button