জানা-অজানা

মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে এলাচ খাওয়ার উপযুক্ত সময় কখন? জেনে নিন

মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে এলাচ খাওয়ার উপযুক্ত সময় কখন? জেনে নিন

রান্নার স্বাদ আর সুগন্ধ বাড়াতে সবুজ এলাচ জনপ্রিয় মশলা। বাঙালির রান্না ঘরে এর উপস্থিতি সব সময় পাওয়া যায়। রান্নাঘর ছাড়াও সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও ধর্মীয় কাজে এলাচের ব্যবহার হয়ে থাকে। এটি প্রাকৃতিক মাউথ ফ্রেশনার হিসেবেও অসাধারণ।

বিশেষজ্ঞরা বলেন, জাফরান ও ভ্যানিলার পরেই সবুজ এলাচ বিশ্বের সবচেয়ে দামি মশলা।

>> মুখে দুর্গন্ধ বা হ্যালিটোসিস হলে ব্যাকটেরিয়া তৈরি হয়। এর কারণে গন্ধ থেকে গ্যাস তৈরি হতে পারে। সাধারণত আমরা যে খাবার খাই তাতে ব্যাকটেরিয়া শর্করা এবং স্টার্চ ভেঙ্গে দিলে গন্ধ উৎপন্ন হয়। কিছু ক্ষেত্রে এটি মাড়ির রোগ বা দাঁত ক্ষয়ের মতো গুরুতর দাঁতের সমস্যারও কারণ হতে পারে। এই সমস্যা দূর করতে কিছু সময় সবুজ এলাচ চাবাতে পারেন।

আরও পড়ুন :: আরও পড়ুন :: এই ৫ রাশির জাতকই সবচেয়ে সেক্সি! জেনে নিন আপনি আছেন নাকি এই তালিকায়?

>> নিঃশ্বাসের দুর্গন্ধ দূর করে ব্যাকটেরিয়া নাশ করে এলাচ। এটি দুর্গন্ধ সৃষ্টিকারী জীবাণুর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে পারে। এছাড়াও এর শক্তিশালী গন্ধ নিঃশ্বাসের দুর্গন্ধ দূর করতে পারে। এলাচের বীজের তেল ও নিঃশ্বাসের দুর্গন্ধ সৃষ্টিকারী ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করতে পারে। প্রতিবার খাওয়ার পর এলাচ মুখে নিয়ে চাবাতে পারেন। এলাচ চা পান করতে পারেন অথবা দিনে দুই বার উষ্ণ এলাচ চা দিয়ে কুলকুঁচি করে নিতে পারেন। এটি কার্যকরী মুখ পরিষ্কারক হিসেবে কাজ করবে।

উল্লেখ্য, প্রাচীন যুগে, সবুজ এলাচ এমন একটি পদার্থ ছিল, যা রাজা-রাজপুত্ররা তাদের রাজনৈতিক ভ্রমণের সময় অন্যান্য রাজাদের সম্মানের চিহ্ন হিসাবে ব্যবহার করা হতো। সবুজ এলাচ উল্লেখযোগ্যভাবে পারফিউম এবং সুগন্ধযুক্ত তেল তৈরিতে অন্যতম প্রধান উপাদান হিসেবে ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

আরও পড়ুন ::

Back to top button