কলকাতা

হচ্ছে না যাত্রী , জনপ্রিয় হল না রাতের ‘বিশেষ’ মেট্রো পরিষেবা – চিন্তায় কর্তৃপক্ষ

ওয়েস্ট বেঙ্গল নিউজ ২৪

হচ্ছে না যাত্রী , জনপ্রিয় হল না রাতের ‘বিশেষ’ মেট্রো পরিষেবা - চিন্তায় কর্তৃপক্ষ

রাত করে বাড়ি ফেরা কিছু অফিস কর্মীকেই নিয়েই ছোটে ট্রেন। স্টেশনে ঢোকার অধিকাংশ গেটও থাকে বন্ধ। ফলে অনেকেই প্রবেশদ্বার খুঁজে না পেয়ে ফিরেও যান। দিন কুড়ি শেষে দেখা যাচ্ছে আপ-ডাউন মিলিয়ে দুটি মেট্রোয় দিনে গড়ে ৬০০ জন করে যাত্রী হচ্ছে। টিকিট থেকে রোজগার হচ্ছে ৬০০০ টাকা। আর এখানেই এই পরিষেবা চালিয়ে যাওয়া নিয়ে কর্তৃপক্ষ নিজেরাই প্রশ্ন তুলেছে।

আদালতের গুঁতোয় লোকসভা নির্বাচনের মধ্যেই সোম থেকে শুক্র প্রান্তিক স্টেশন থেকে রাত ১১টায় একটা বিশেষ মেট্রো চালানো শুরু হয়। ২৫ শে মে থেকে চালু হওয়া বিশেষ মেট্রো যদিও বেশিরভাগ দিনই থাকে ফাঁকা। সেই সময় মেট্রোর আধিকারিকদের একাংশ জানিয়েছিল, দেড় ঘণ্টা পর একটা মেট্রো দিলে তা কখনই জনপ্রিয় হতে পারে না। হলও না। ধীরে ধীরে তাই এই পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়ার কথাই জানাবে। কর্তৃপক্ষের বক্তব্যু, অত রাতে মেট্রো চালাতে গেলে বহু কর্মীকেই বাড়তি সময় থাকতে হয়। টিকিট কাউন্টার থেকে কন্ট্রোলরুম সর্বত্রই লোক থাকেন।

বাড়তি সময় কাজের জন্যথ তাঁদের বাড়তি টাকাও দেওয়া হয়। ফলে এত খরচ করেও যাত্রী হচ্ছে না। স্বাভাবিকভাবেই এই বিশেষ পরিষেবা মেট্রো কতদিন টানবে তা নিয়েই তাই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। যাত্রীদের বক্তব্যে, শেষ ট্রেন রাত ৯টা ৪০ মিনিটে দমদম ও কবি সুভাষ থেকে ছাড়ার পর এই ট্রেনটি প্রায় দেড় ঘণ্টা বাদে। তাই কেউ যদি শেষ ট্রেন মিস করেন, পরের এই বিশেষ মেট্রো ধরতে তাঁকে দেড় ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হবে স্টেশনে। কেউই তা করবেন না।

আরও পড়ুন ::

Back to top button