স্বাস্থ্য

মাস্ক ব্যবহারেও হতে পারে বিপদ, সতর্ক থাকতে কী করবেন !

 

ওয়েবডেস্ক : করোনাভাইরাসের দাপটে কাঁপছে গোটা বিশ্ব। প্রতিদিনই বাড়ছে এই ভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। এই ভাইরাস থেকে সুরক্ষার অন্যতম উপায় হিসেবে অনেকে দেশেই মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। তবে এর কিছু ঝক্কিও আছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এরই মধ্যে জানিয়েছে, কোনো কোনো ক্ষেত্রে মাস্ক পরাটাও বিপজ্জনক হয়ে উঠতে পারে।

সংস্থাটি বলছে, মাস্ক মুখে দিয়ে শরীরচর্চা, প্রাতঃভ্রমণ বা জগিং করা ঠিক নয়। এতে শরীর পর্যাপ্ত অক্সিজেন গ্রহণ করতে পারেনা। বরং এ ধরনের পরিস্থিতিতে অক্সিজেন কমে তা আরও স্বাস্থ্যের পক্ষে বিপজ্জনক হতে পারে। তাই এসব ক্ষেত্রে মাস্ক না পরার পরামর্শ দিয়েছে তারা।

আরও পড়ুন : করোনায় আক্রান্ত কোয়েল মল্লিক, কোয়ারেন্টিনে অভিনেত্রী সহ পরিবারের ৪ জন !

বিশেষজ্ঞদের মতে খুব ভারী ধরনের কাজ, খুব বেশি দৈহিক পরিশ্রম হয়, এমন কাজের সময় মাস্ক পরে থাকলে শরীরে প্রয়োজনীয় অক্সিজেনের ঘাটতি দেখা দেয়। এতে মস্তিষ্কে রক্ত সঞ্চালনের স্বাভাবিক ছন্দ বিঘ্নিত হতে পারে। ফলে একাধিক স্বাস্থ্য সমস্যা দেখা দিতে পারে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, খুব বেশি দৈহিক পরিশ্রম হয়, এমন কাজের সময় মাস্ক পরে থাকা যাবে না। তবে আশপাশের কোন কিছুর কারণে যদি করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি থাকে তাহলে ঝুঁকি নেই এমন স্থানেই যেতে হবে।

যেমন -শরীর চর্চা করতে হলে জনবহুল স্থানে না করে একেবারে নির্জন স্থানে করতে হবে, যেখানে কারো কাছ থেকে দেহে জীবাণু প্রবেশের সম্ভাবনা থাকবে না।

আরও পড়ুন : বিকাশ দুবে এনকাউন্টার-কাণ্ডে কী জানাল পুলিশ, জেনে নিন !

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, শরীরচর্চা, প্রাতঃভ্রমণ, জগিং, অত্যাধিক দৈহিক পরিশ্রম যুক্ত ভারী কাজের সময় মাস্ক পরলে যখন শরীরে অক্সিজেনের ঘাটতি হয় তখন অস্বাভাবিক ক্লান্তি দেখা দেয়। পাশাপাশি শরীরের বিভিন্ন অংশের পেশিতে টান পড়া বা খিঁচুনি, বমি ভাব, মাথা ঘোরানো এমনকি স্ট্রোক পর্যন্ত হতে পারে।

আরও পড়ুন ::

Back to top button