প্রযুক্তি

রিলায়েন্সের হাত ধরে ফিরতে পারে টিকটক !



অ্যাপ নিষিদ্ধ হওয়ার পর ভারতে ব্যবসা বাঁচাতে মরিয়া টিকটকের মূল সংস্থা বাইটড্যান্স। সেই লক্ষ্যেই এ বার কথাবার্তা শুরু করল রিলায়্যান্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড (রিল)-এর সঙ্গে। গত মাসের শেষ সপ্তাহে প্রাথমিক কথাবার্তা হলেও এখনও চূড়ান্ত কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি বলেই দুই সংস্থা সূত্রে খবর। কথাবার্তা বা চুক্তির বিষয়ে মন্তব্য করতে চায়নি কোনও পক্ষই।

লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় সেনা সংঘর্ষের জেরে ভারত-চিন সম্পর্কের অবনতির জেরে গত ২৯ জুন টিকটক-সহ ৫৯টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করে ভারত সরকার। ভারতে টিকটকের ফলোয়ার প্রায় ২০ কোটি। ফলে বিরাট ধাক্কা খায় ছোট ভিডিয়োর এই অ্যাপ তথা মূল সংস্থা বাইটড্যান্স। সেই ধাক্কা কাটিয়ে ভারতে ব্যবসা টিকিয়ে রাখতে মরিয়া হয়ে চেষ্টা চালাচ্ছিল এই চিনা সংস্থা। সেই সূত্রেই রিলায়্যান্সের সঙ্গে বাইটড্যান্স কথা চালাচালি শুরু করেছে বলে তথ্যপ্রযুক্তি সংক্রান্ত সংবাদ মাধ্যম টেকক্রাঞ্চ জানিয়েছে।

[ আরও পড়ুন : মানসিক রোগী ছিলেন না সুশান্ত ]

টেকক্রাঞ্চের দাবি, দুই সংস্থার তরফেই আলোচনার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। তবে যেহেতু বিষয়টি গোপনীয়, তাই কোনও পক্ষই এ নিয়ে মন্তব্য করতে চায়নি। ওই দুই সূত্রই বাইটড্যান্স ও রিলের আলোচনার সঙ্গে সরাসরি যুক্ত বলেও দাবি করেছে টেকক্রাঞ্চ। তবে কথাবার্তা যে খুব বেশি এগিয়েছে, এমন ইঙ্গিতও মেলেনি, দাবি টেকক্রাঞ্চের। তবে রিল বা বাইটড্যান্সকে ই-মেলের মাধ্যমে প্রতিক্রিয়া জানতে চাওয়া হলে কোনও সংস্থাই টেকক্রাঞ্চকে জবাব দেয়নি।

মুকেশ অম্বানীর সংস্থা রিলায়্যান্সের জিয়োতে সম্প্রতি বিপুল বিনিয়োগ করেছে তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রের শীর্ষস্তরে থাকা গুগল, ফেসবুকের মতো একাধিক সংস্থা। গত কয়েক মাসে ১৩টি সংস্থার সঙ্গে চুক্তিতে প্রায় ২ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ এসেছে মুকেশের সংস্থায়। সেই দিকে তাকিয়ে এই চুক্তির বিষয়ে আশাবাদী বাইটড্যান্স। অন্য দিকে রিলায়্যান্স জিয়োর সঙ্গে ভারতের প্রায় ৪০ কোটি মানুষের সরাসরি যোগাযোগ রয়েছে।

দেশে টিকটকের যা জনপ্রিয়তা, তাতে জিয়োর সঙ্গে যুক্ত সেই ভিত্তি আরও বাড়বে বলেই মত তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞদের। কিন্তু প্রশ্ন হল, ভারত সরকার যেখানে টিকটকে নিষিদ্ধ করেছে, সেখানে রিলায়্যান্সের মতো দেশের সবচেয়ে বড় সংস্থা, চিনা সংস্থার সঙ্গা গাঁটছড়া বাঁধবে কি? বিশেষজ্ঞদের মতে, এই রকম চুক্তি হলে তাতে সংস্থার ভাবমূর্তির ক্ষতি হতে পারে। সেটা রিলায়্যন্স কর্তারাও নিশ্চয়ই সেটা বুঝেই পা ফেলবেন।


[ আরও পড়ুন : টিকটক নিয়ে কর্মীদের সাথে মাইক্রোসফটের বিরোধ চরমে ]

কিন্তু টিকটক এখনও চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ভারতে টিকে থাকার জন্য। দেশে টিকটক-সহ বাইটড্যান্সের মোট ২০০০ কর্মী রয়েছেন। চিনা কর্তৃপক্ষ এখনও তাঁদের কাউকেই চাকরি ছাড়তে বলেননি। তাঁদের বরং আশ্বস্ত করছেন, ভারত সরকারের সঙ্গে কথাবার্তা চালিয়ে যাচ্ছেন তাঁরা। সরকার যে সব বিষয়ে প্রশ্ন তুলেছে, সেগুলিৱ উত্তর দিয়ে সমস্যা মেটানোর চেষ্টাও চলছে।

পাশাপাশি কর্মীদের ছাঁটাই হবে না বলেও বার্তা দেওয়া হয়েছে। তবে উচ্চপদস্থ অনেকেই চাকরি ছেড়েছেন। বাইটড্যান্সেরই অন্য অ্যাপ হেলোর ভারতীয় প্রধান রোহন মিশ্র গত সপ্তাহেই সংস্থা ছেড়েছেন বলে সূত্রের খবর। যদিও রিলায়্যান্স-বাইটড্যান্সের এই কথোপকথনের বিষয়েও তিনি কোনও মন্তব্য করতে চাননি।

 

 

সুত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা


Related Articles

Back to top button